রাজনীতি - আগস্ট ২৯, ২০১৯

ষড়যন্ত্র থেমে নেই : স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী

স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী আসাদুজ্জামান খান কামাল বলেছেন, স্বাধীনতার পর ষড়যন্ত্র করে বঙ্গবন্ধুকে হত্যা করা হয়েছিল, সেই ষড়যন্ত্র এখনো থেমে নেই। তার (বঙ্গবন্ধু) কন্যা প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনাকে ১৯ বার মৃত্যুর মুখোমুখি হতে হয়েছে। এ ষড়যন্ত্রের শেষ নেই।

বৃহস্পতিবার (২৯ আগস্ট) বাংলাদেশ ব্যাংকে বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের ৪৪তম শাহাদতবার্ষিকী ও জাতীয় শোক দিবসের আলোচনা সভায় তিনি এসব কথা বলেন।

বঙ্গবন্ধু শিক্ষা ও গবেষণা পরিষদ আয়োজিত সভার উদ্বোধন করেন সংগঠনটির সভাপতি ও ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের সাবেক উপাচার্য প্রফেসর ড. আ আ ম স আরেফিন সিদ্দিক। অনুষ্ঠানে বাংলাদেশ ব্যাংকের গভর্নর ফজলে কবির, ডেপুটি গভর্নর এস এম মুনিরুজ্জামান, আহমেদ জামাল, সাবেক তথ্য কমিশনার প্রফেসর ড. খুরশীদা বেগম সাঈদ, ব্যাংকিং রিফর্ম অ্যাডভাইজার এস কে সুর চৌধুরী প্রমুখ উপস্থিত ছিলেন। সভায় সভাপতিত্ব করেন বঙ্গবন্ধু শিক্ষা ও গবেষণা পরিষদের বাংলাদেশ ব্যাংক শাখার সভাপতি মো. সিদ্দিকুর রহমান মোল্লা।

স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী বলেন, পূর্ব ও পশ্চিম পাকিস্তানের সংসদের আসনে সংখ্যাগরিষ্ঠতা থাকা সত্ত্বেও তারা (পাকিস্তান) ক্ষমতা ছেড়ে দেয়নি। বঙ্গবন্ধু সব সময় বলতেন যে, তারা আমাদের ক্ষমতা ছেড়ে দেবে না। তাই আগরতলা মামলা থেকে মুক্ত হয়ে বঙ্গবন্ধু ছাত্রনেতাদের বললেন, তোমরা গেরিলা যুদ্ধের জন্য প্রস্তুত হও। এরপর বঙ্গবন্ধুর নেতৃত্বে আমরা যুদ্ধ করেছি, নিরস্ত্র বাঙালি যুদ্ধ করে দেশ স্বাধীন করলাম।

তিনি বলেন, ষড়যন্ত্রকারীরা বঙ্গবন্ধুকে হত্যা করে মনে করেছিল মানুষ সব ভুলে যাবে। কিন্তু মৃত বঙ্গবন্ধু শক্তিতে পরিণত করেছে। তার কন্যা এখন রাষ্ট্রক্ষমতায়। বঙ্গবন্ধুর দেখানো স্বপ্ন বাস্তবায়নে কাজ করছেন তিনি।

গভর্নর ফজলে কবির বলেন, বঙ্গবন্ধু জীবনের সব আরাম আয়েশ ত্যাগ করে শুধু সাধারণ মানুষের মুক্তির জন্য কাজ করেছেন। তিনি সবসময় খেটে খাওয়া কৃষক, শ্রমিকের কাছে গেছেন। তাদের পাশে দাঁড়িয়েছেন। তাই দেশের অর্থনৈতিক মুক্তির জন্য বঙ্গবন্ধুর আদর্শ গ্রহণ করতে হবে।

আ আ ম স আরেফিন সিদ্দিক বলেন, বঙ্গবন্ধু যেখানেই গেছেন সেখানেই বঞ্চিত মানুষের জন্য কাজ করেছেন। তাই বঙ্গবন্ধুর আদর্শ ও কথা শুধু মুখে মুখে বললেই চলবে না। এটি অন্তরে ধারণ করতে হবে, বাস্তবায়ন করতে হবে।


আরও পড়ুন