প্রশংসায় ভাসছেন ম্যাজিস্ট্রেট সারওয়ার

রাজধানীতে একের পর এক ভেজালবিরোধী অভিযান পরিচালনার পর এবার রাজধানীর অবৈধ ক্যাসিনোতে অভিযান পরিচালনা করে আলোচনায় র্যাব সদর দফতরের নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট মো. সারওয়ার আলম।

সারওয়ার আলমের নিজ জেলা কিশোরগঞ্জের বিভিন্ন হাটবাজার, রাস্তাঘাট ও চায়ের স্টলে এখন তাকে নিয়েই আলোচনা। জেলাবাসী তাকে নিয়ে ফেসবুকে দিচ্ছেন প্রশংসাসূচক বিভিন্ন স্ট্যাটাস।

শুধু কিশোরগঞ্জ নয়, কিশোরগঞ্জের পাশাপাশি সারাদেশের সাধারণ মানুষ এখন ম্যাজিস্ট্রেট সারওয়ারের প্রশংসায় পঞ্চমুখ।

সূত্র জানায়, র্যাব সদর দফতরে যোগ দেয়ার পর প্রতিদিনই ঢাকার কোনো-না-কোনো ব্যবসা প্রতিষ্ঠান, শিল্পকারখানা কিংবা খাবারের দোকানে ভেজালবিরোধী অভিযান চালিয়ে দেশবাসীর দৃষ্টি কাড়েন মো. সারওয়ার আলম। একই সাথে কিশোরদের মাদকসেবন থেকে শুরু করে রাজধানীতে ঘটা নানান অপরাধ কর্মকাণ্ডের বিরুদ্ধেও সমানতালে অভিযান চালাচ্ছেন তিনি।

বুধবার ফকিরাপুলের ইয়ংমেন্স ক্লাবের অবৈধ ক্যাসিনোতে অভিযান চালায় র্যাব। এ অভিযানের নেতৃত্বে ছিলেন সারোয়ার আলম। সেখান থেকে ১৪২ জন নারী-পুরুষকে আটক করা হয়। অবৈধ এই ক্যাসিনোতে চালানো অভিযানে বিপুল জুয়া সামগ্রী, মাদক ও নগদ ২৪ লাখ টাকা উদ্ধার করা হয়। পাশাপাশি ওইদিনই ক্যাসিনো রাজা খালেদ মাহমুদ ভূঁইয়ার গুলশানের বাসায় অভিযান চালিয়ে অস্ত্র ও মাদকসহ তাকে আটক করা হয়। খালেদ ঢাকা দক্ষিণ যুবলীগের সাংগঠনিক সম্পাদক।

অবৈধ ক্যাসিনোতে অভিযান

অবৈধ ক্যাসিনোতে র্যাবের এই অভিযানের পর তোলপাড় সৃষ্টি হয়। বের হয়ে আসতে থাকে একের পর এক অবৈধ ক্যাসিনোকে ঘিরে চাঞ্চল্যকর সব তথ্য। প্রশংসায় ভাসেন অবৈধ ক্যাসিনোবিরোধী অভিযানে নেতৃত্ব দেয়া র্যাব সদর দপ্তরের নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট মো. সারওয়ার আলম।

এদিকে, শুক্রবারও যুবলীগের কেন্দ্রীয় নেতা পরিচয় দেয়া জি কে শামীমের নিকেতনের ৫ নম্বর রোডের ১৪৪ নম্বর বাসায় অভিযান চালায় র্যাব। এ অভিযানের নেতৃত্বেও ছিলেন সারোয়ার আলম। শামীমের বাসা থেকে থেকে ১৬৫ কোটি টাকার এফডিআরের নথি, নগদ ১ কোটি ৬৫ লাখ টাকা, অস্ত্র, বিদেশি মুদ্রা, মদ, আগ্নেয়াস্ত্র, মাদক জব্দ করা হয়।

জি কে শামীমের বাসায় অভিযান

নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট মো. সারওয়ার আলম কিশোরগঞ্জের পাকুন্দিয়ার সন্তান। পাকুন্দিয়া বড়বাড়ির ব্যবসায়ী বাবা বোরহান উদ্দিন এবং ‘গরবিনী মা’ মোছাম্মত আমেনা খাতুনের একমাত্র ছেলে তিনি। ছয় ভাইবোনের মধ্যে সবার বড় মো. সারওয়ার আলম। তার স্কুল ও কলেজ-জীবন কেটেছে কিশোরগঞ্জে। পড়েছেন কিশোরগঞ্জের ঐতিহ্যবাহী গুরুদয়াল সরকারি কলেজে। এরপর ভর্তি হন ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ে।

২৭তম বিসিএসের মাধ্যমে মো. সারওয়ার আলম যোগ দেন প্রশাসনে। বর্তমানে দায়িত্ব পালন করছেন র্যাপিড অ্যাকশন ব্যাটালিয়ন (র্যাব) ফোর্সেসের আইন কর্মকর্তা ও নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট হিসেবে।


আরও পড়ুন