কক্সবাজারে এনআইডি জালিয়াত চক্র সন্দেহে আটক ৫

কক্সবাজার শহরের লালদিঘীর দক্ষিণপাড়ে জিয়া কমপ্লেক্সে অভিযান চালিয়ে জাতীয় পরিচয়পত্র ও জন্ম নিবন্ধন জালিয়াত চক্র সন্দেহে পাঁচজনকে আটক করেছে জেলা গোয়েন্দা শাখা (ডিবি) পুলিশ । এ সময় জালিয়াতি কাজে ব্যবহার করার অভিযোগে কম্পিউটার, স্ক্যানার ও প্রিন্টারও জব্দ করা হয়।

সোমবার সন্ধ্যায় পুলিশ সুপার এবিএম মাসুদ হোসেনের নির্দেশে ডিবি পুলিশের একটি দল শহরে জিয়া কমপ্লেক্সস্থ এস ইন্টারন্যাশনাল নামের একটি প্রতিষ্টানে এ অভিযান চালান।

আটকরা হলেন, কক্সবাজার পৌরসভার উত্তর তারাবনিয়ারছরা উকিলপাড়ার এটি ভবনের মোঃ আব্দুর রহিমের ছেলে মোহাম্মদ রাশেদ (২১), পাহাড়তলীর ইলিয়াস মুন্সির বাড়ির মৃত মুহাম্মদ ইলিয়াসের ছেলে শফিকুল ইসলাম (৪৮), রহমানিয়া মাদ্রাসা এলাকার সৈয়দ করিমের ছেলে মোহাম্মদ ফরহাদ ( ২১), এসএম পাড়ার শামশুল হুদার ছেলে তাসিন হোসেন (২০) ও চকরিয়ার খুটাখালী ইউনিয়নের ৩ নম্বর ওয়ার্ডের মেধাকচ্ছপিয়ার হারুন-অর-রশিদের ছেলে মোহাম্মদ ওসমান (৩৫)।

লালদীঘিরপাড়ের জিয়া কমপ্লেক্সস্থ এস ইন্টারন্যাশনালের মালিক শফিকুল ইসলাম কক্সবাজার জেলা সদর হাসপাতালে একটি এনজিও পরিচালিত নারী স্বাস্থ্য কেন্দ্রের পরিচালক বলে জানা গেছে।

এ সময় জব্দ করা হয়, একটি ডেল নামীয় সিপিইউ কোর আই থ্রি, একটি ডেল নামীয় সিপিও কোর আই ৫, একটি ডিলাক্স নামিও সিপিইউ, একটি স্যামসাং ১৫ ইঞ্চি মনিটর, একটি ক্যানন স্ক্যানার, একটি প্রিন্টার।

জেলা গোয়েন্দা বিভাগের ইন্সপেক্টর মানস বড়ুয়া জানান, আটককৃতরা প্রাথমিক জিজ্ঞাসাবাদে স্বীকার করেন, তারা পরস্পরের যোগসাজসে রোহিঙ্গাদের ভুয়া জন্ম সনদ, ভুয়া এনআইডি এবং পাসপোর্ট তৈরীতে সহায়তা করে আসছিল। উক্ত আসামীদের বিরুদ্ধে ডিজিটাল নিরাপত্তা আইন অনুযায়ী মামলা রুজু প্রক্রিয়াধীন রয়েছে।


আরও পড়ুন