চিরনিদ্রায় শায়িত রবার্ট মুগাবে

মৃত্যুর তিন সপ্তাহ পর অবশেষে মায়ের কবরের পাশে চিরনিদ্রায় শায়িত হয়েছেন জিম্বাবুয়ের সাবেক প্রেসিডেন্ট রবার্ট মুগাবে।

রাজধানী হারারে থেকে ৯০ কিলোমিটার পূর্বে নিজ জন্মস্থান কুটামার গ্রামে পারিবারিক কবরস্থানে তার লাশ দাফন করা হয়েছে। খবর বিবিসির।
২০১৭ সালে এক সামরিক অভ্যুত্থানে ৩৭ বছর দেশ শাসন করা মুগাবে ক্ষমতাচ্যুত হন। এর দুই বছর পর গত ৬ সেপ্টেম্বর সিঙ্গাপুরের একটি হাসপাতালে ৯৫ বছর বয়সে মৃত্যু হয় রবার্ট মুগাবের।

এর পর থেকেই রাজধানী হারারের হিরোজ একর সমাধিস্থল নাকি রাজধানীর উত্তর-পশ্চিমে জাভিম্বায় মুগাবের গ্রামের বাড়িতে লাশ দাফন করা হবে, এ নিয়ে দ্বন্দ্বে জড়িয়ে পড়েছিল সরকার ও মুগাবের পরিবার।

অবশেষে পারিবারিক আয়োজনে গ্রামের বাড়িতেই ২৮ সেপ্টেম্বর দাফন করা হয় মুগাবের লাশ।

দাফনের আগে আনুষ্ঠানিকতায় অংশ নেন মুগাবের কয়েকশ শুভানুধ্যায়ী। তবে জিম্বাবুয়ে সরকারের কোনো উচ্চপদস্থ কর্মকর্তাকে সেখানে দেখা যায়নি। এর আগে গত ১৪ সেপ্টেম্বর হারারেতে মুগাবের সম্মানে রাষ্ট্রীয় শেষকৃত্যানুষ্ঠানের আয়োজন করা হয়।

পরিবারের দাবি, মুগাবের ইচ্ছা ছিল তার মা-বোনের পাশে যেন তাকে দাফন করা হয়। সে অনুযায়ীই মুগাবেকে তার গ্রামের বাড়িতে দাফন করা হয়েছে।


আরও পড়ুন