অষ্টগ্রাম - অক্টোবর ২, ২০১৯

ব্লক সরে গিয়ে হুমকির মুখে ৪৬ কোটি টাকার বাংগালপাড়া-চাতল সড়ক

কিশোরগঞ্জের অষ্টগ্রামে কাজের ৩ মাসের মাথায় বাংগালপাড়া-চাতলপাড় সড়কের ব্লক সরে যাওয়ার কারনে হুমকির মুখে রয়েছে স্থানীয় সরকার প্রকৌশলী (এলজিইডির) ৪৬ কোটি ব্যয়ের সড়কটি।

এইভাবে ক্রমাগত ভাঙ্গতে তাকলে বেসতে যেতে পারে ব্রাম্মণবাড়িয়ার সঙ্গে অষ্টগ্রম ও হাওরের যোগাযোগের একমাত্র সড়ক ব্যবস্থা।

উপজেলা প্রকৌশলী অধিদপ্তর সৃত্রে জানা গেছে, হাওরে সাথে ব্রাম্মণবাড়িয়ার যোগাযোগ ব্যবস্থার জন্য স্থানীয় সরকার প্রকৌশলী অধিদপ্তর (এলজিইডি) ৪৬ কোটি টাকা ব্যয়ে দুটি প্রকল্পের মাধ্যমে ছোট-বড় ৪ টি ব্রিজসহ সাড়ে ৭ কিলোমিটার এই সড়কটির গত জুন মাসে কাজ শেষ করে স্থানীয় সরকার প্রকৌশলী অধিদপ্তর (এলজিইডি) কে সড়কটি বুঝিয়ে দেওয়া হয়।

সরেজমিনে গিয়ে ঘুরে দেখা গেছে, ব্রাম্মণবাড়িয়া-অষ্টগ্রাম ও হাওরের একমাত্র সড়ক যোগাযোগ রাস্তাটি উপজেলার বাংগালপাড়া ইউনিয়নের লাইড়া গ্রাম থেকে নাজিরপুর গ্রামের সামনের দিক দিয়ে বয়ে যাওয় সড়কটির ব্লক গুলো সরে যাচ্ছে এবং ব্লক সরে গিয়ে কোথায় কোথায় বড় গর্ত সৃষ্টি হচ্ছে।

নাজিরপুর গ্রামের বাসিন্দা বরকত উল্লাহ নামের এক ব্যাক্তি বলেন, বসবাসের জন্য ইট, বালু, সিমেন্ট দিয়ে একটি বড়ি তৈরি করলেও ১৫-২০ বছর চলে যায় কিন্ত সড়কটির কাজ শেষ হতে না হতেই এমন অবস্থা কি আর বলব।

লাউড়া- নাজিরপুর গ্রামের একাধিক লোকজনের সাথে কথা বললে তারা বলেন, কাজের গুণগতমান
যদি ঠিক থাকত তাহলে এই সড়কটি মাত্র ৩ মাসের মাথায় ভেঙ্গে এই অবস্থা এমন হতো না।

এ ব্যপারে উপজেলা প্রকৌশলী মাহাবুব মোর্শেদকে জিঞ্জাসা করা হলে তিনি জানান, বর্ষার পানি আর বৃষ্টি কারনে ব্লক সরে যাচ্ছে। তবে বর্ষার পানি না যাওয়া পর্যন্ত সড়কটির কাজ করার সুযোগ নেই।

এ বিষয়ে কিশোরগঞ্জের জেলা নির্বাহী প্রকৌশলী আমিরুজ্জামান জানান, আমি নতুন আসছি তাই বিষয়টি অবগত নয় তবে বিষয়টি খবর নিয়ে দেখছি।


আরও পড়ুন