‘পাগলা মিজানের’ বিরুদ্ধে দুই মামলা

সীমান্ত এলাকা হয়ে দেশত্যাগের সময় র‌্যাবের হাতে আটক হওয়া ঢাকার কাউন্সিলর হাবিবুর রহমান মিজান ওরফে পাগলা মিজানের বিরুদ্ধে দুইটি মামলা দায়ের করা হয়েছে।

শনিবার (১২ অক্টোবর) রাজধানীর মোহাম্মদপুর থানা এবং মৌলভীবাজারের শ্রীমঙ্গলে র‌্যাব বাদী হয়ে পৃথক মামলা দু’টি দায়ের করে।

র‌্যাব-১’র অধিনায়ক লে. কর্নেল আশিক বিল্লাহ জানান, কাউন্সিলর হাবিবুর রহমান মিজানের বিরুদ্ধে শ্রীমঙ্গলে অস্ত্র আইনে একটি মামলা দায়ের করা হয়েছে। এছাড়া ঢাকার মোহাম্মদপুর থানায় মানি লন্ডারিং আইনে আরও একটি মামলা দায়ের করা হয়েছে।

মোহাম্মদপুর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) গণেশ গোপাল বিশ্বাস জানান, হাবিবুর রহমান মিজানের বিরুদ্ধে মোহাম্মদপুর থানায় মানি লন্ডারিং আইনে একটি মামলা (নং-৩১) দায়ের করেছে র‌্যাব।

এর আগে শুক্রবার (১১ অক্টোবর) ভোরে মৌলভীবাজারের শ্রীমঙ্গলে বান্ধবীর বাসা থেকে ঢাকা উত্তর সিটি করপোরেশন ৩২ নম্বর ওয়ার্ডের কাউন্সিলর হাবিবুর রহমান মিজানকে আটক করে র‌্যাব। এ সময় তার কাছ থেকে একটি অবৈধ পিস্তল, চার রাউন্ড গুলি ও নগদ ২ লাখ টাকা উদ্ধার করা হয়।

তিনি সীমান্ত এলাকা হয়ে পার্শ্ববর্তী দেশে পালিয়ে যাওয়ার চেষ্টা করছিলেন। পরে তাকে সঙ্গে নিয়ে বিকেলে মোহাম্মদপুরে তার বাসায় অভিযান চালায় র‌্যাব সদস্যরা। এ সময় তার বাসা থেকে ৬ কোটি ৭৭ লাখ টাকার চেক, এক কোটি টাকার এফডিআর উদ্ধার করা হয়।


আরও পড়ুন