কুলিয়ারচর উপজেলা গণফোরাম সভাপতি বীর মুক্তিযোদ্ধা মতিউল ইসলামের ইন্তেকাল

কিশোরগঞ্জের কুলিয়ারচর উপজেলা গণফোরাম সভাপতি বিশিষ্ট সমাজ সেবক  বীর মুক্তিযোদ্ধা মো. মতিউল ইসলাম আর নেই। সবাইকে রেখে চলে গেছেন না ফেরার দেশে।

তিনি শুক্রবার (২৫ অক্টোবর) ভোর সাড়ে ৫টার দিকে এ পৃথিবীর মায়া ত্যাগ করে পরপারে চলে গেছেন (ইন্নালিল্লাহি ওয়া ইন্না ইলাইহি রাজিউন)। শুক্রবার বাদ আছর ছয়সূতী খেলার মাঠে নামাজে জানাজা শেষে তাঁর নিজ গ্রাম উপজেলার ছয়সূতী ইউনিয়নের ছোট ছয়সূতী গ্রামে পারিবারিক গোরস্থানে তাঁর মরদেহ দাফন করা হয়।

নামাজে জানাযায় কিশোরগঞ্জ জেলা পরিষদের সদস্য ও কুলিয়ারচর উপজেলা মুক্তিযোদ্ধা সংসদের সাবেক কমান্ডার আলহাজ্ব মো. জিল্লুর রহমান, কুলিয়ারচর উপজেলা আওয়ামী লীগের সাবেক সভাপতি আবুল হোসেন লিটন, উপজেলা পরিষদের ভাইস চেয়ারম্যান সৈয়দ নূরে আলম, ছয়সূতী ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের সভাপতি হীরা মিয়া সরকার ও ছয়সূতী ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান মীর মো. মিজবাহুল ইসলামসহ উপজেলার ৬ ইউনিয়ন ও পৌর এলাকার বিভিন্ন রাজনৈতিক ও সামাজিক সংগঠনের নেতাকর্মীগণ উপস্থিত ছিলেন।

এর আগে এ বীর মুক্তিযোদ্ধাকে কুলিয়ারচর থানা পুলিশের পক্ষ থেকে রাষ্ট্রীয় মর্যাদায় গার্ড অব অনার এর মাধ্যমে সালাম প্রদান করা হয়। এ সময় কুলিয়ারচর উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা কাউসার আজিজ উপস্থিত ছিলেন।

মৃত্যুকালে তাঁর বয়স হয়েছিল ৭৬ বছর। তিনি স্ত্রী ১ ছেলে ৩ মেয়ে ও অসংখ্য গুণগ্রাহী রেখে গেছেন। জীবদ্ধশায় শিক্ষা জীবনে তিনি ছাত্র ইউনিয়নের রাজনীতির সাথে জড়িত ছিলেন। পড়ে তিনি বাম রাজনীতি করতে গিয়ে ন্যাপ ও কমিউনিষ্ট পার্টির পরে গণফোরামে যোগদান করে কুলিয়ারচর উপজেলার সভাপতির দায়িত্ব পালন করেন। ১৯৭১ সালের মহান স্বাধীনতা সংগ্রামের সময় তিনি ন্যাপ – কমিউনিষ্ট পার্টির বিশেষ গ্যারিলা বাহিনীর সদস্য হিসেবে মুক্তিযুদ্ধে অংশগ্রহণ করেন। এছাড়া তিনি বিভিন্ন সামাজিক সংগঠনের সাথে জড়িত থেকে সমাজ সেবায় বলিষ্ঠ ভূমিকা পালন করেছেন। মৃত্যুর পূর্বে তিনি এড. মিজবাহুল ইসলাম – ড. মাহ বুব উল হক স্মৃতি সংসদ ও পাঠাগার প্রতিষ্ঠার লক্ষ্যে কাজ করে গেছেন।

বর্ষিয়ান এ রাজনৈতিক ব্যক্তিত্বের মৃত্যুতে বিএনপির কেন্দ্রীয় কমিটির সহ- সাংগঠনিক সম্পাদক ও কিশোরগঞ্জ জেলা বিএনপি’র সভাপতি মো. শরীফুল আলম এবং কুলিয়ারচর উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান আলহাজ্ব ইয়াছির মিয়া, উপজেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি ইমতিয়াজ বিন মুছা জিসান, সাবেক সভাপতি আবুল হোসেন লিটন, উপজেলা পরিষদের সাবেক চেয়ারম্যান ও কুলিয়ারচর উপজেলা বিএনপি’র সাধারণ সম্পাদক নূরুল মিল্লাত পৃথক পৃথক ভাবে মরহুমে বিদেহী আত্মার মাগফিরাত কামনা ও গভীর শোক প্রকাশ করে শোকাহত পরিবারের প্রতি সমবেদনা প্রকাশ করেছেন।


আরও পড়ুন