ডিমলায় শয়ন কক্ষে যুবকের আত্মহত্যা

নীলফামারীর ডিমলায় তাওফিক রহমান (১৮) নামে এক যুবক ঘরের সিলিং ফ্যানের সাথে ওড়না পেঁচিয়ে গলায় ফাঁস দিয়ে আত্মহত্যা করেছেন।

সোমবার(৪ নভেম্বর)সন্ধ্যায় ডিমলা সদরের মেডিকেল মোড় প্রভাষক পাড়ায় নিজ বাড়ির শয়ন কক্ষে তিনি আত্মহত্যা করেন। নিহত যুবক একই এলাকার মোস্তাফিজুর রহমান মামুনের ছেলে।

পুলিশ ও নিহত যুবকের পরিবার সুত্রে জানা গেছে, নিহত তাওফিক দীর্ঘ এক বছর যাবত মানসিক রোগে ভুগেছিলেন।তিনি নিয়মিত পাঁচ ওয়াক্ত নামাজ পড়তেন। ঘটনার দিন মাগরিবের আযানের পর নিহতের মা তানজিনা বেগম ছেলে তাওফিক নামাজ পড়েছে কি-না তা জানতে তার ঘরে গিয়ে দেখতে পান ছেলে তাওফিক ঘরের সিলিং ফ্যানের সাথে গলায় ওড়না পেঁচানো অবস্থায় ঝুলন্ত, এমতাবস্থায় তিনি চিৎকার করতে থাকেন।

তার আত্মচিৎকারে এলাকাবাসী ছুটে এসে তাওফিকের গলার ফাঁস কেটে তাকে উদ্ধার করে উপজেলার সরকারি স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নিলে সেখানকার কর্তব্যরত চিকিৎসক যুবককে মৃত ঘোষনা করেন।

ডিমলা থানার ওসি মফিজ উদ্দিন শেখ ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করে বলেন, নিহতের পরিবারসহ এলাকাবাসীর কোনো অভিযোগ না থাকায় লাশ দাফনের জন্য পরিবারের কাছে হস্তান্তর করা হয়েছে। এ ঘটনায় থানায় একটি ইউডি মামলা দায়ের করা হয়েছে।


আরও পড়ুন