ইডেনে ছাত্রলীগের দুই পক্ষের সংঘর্ষ

রাজধানীর ইডেন মহিলা কলেজে আবাসিক হলের সিট নিয়ে ছাত্রলীগের দুই পক্ষের সংঘর্ষ হয়েছে। এতে আহত হয়েছেন বেশ কয়েকজন ছাত্রী। আজ শনিবার ভোরে কলেজের শেখ ফজিলাতুন্নেছা হলে এ ঘটনা ঘটে।

ঘটনার পর কলেজ ক্যাম্পাসে অতিরিক্ত পুলিশ মোতায়েন করা হয়েছে।

জানা গেছে, ছাত্রলীগের যুগ্ম আহ্বায়ক রূপা বঙ্গমাতা শেখ ফজিলাতুন্নেছা হলে ২১৯ নম্বর কক্ষে নাবিলা নামে বেসরকারি বিশ্ববিদ্যালয়ের এক শিক্ষার্থীকে বহিরাগত হিসেবে টাকার বিনিময়ে রাখতেন। তাকে রাখাকে কেন্দ্র করে হলে অন্য নেত্রীদের সঙ্গে কথা কাটাকাটি হয়। এক পর্যায়ে রূপা তার অনুসারীদের নিয়ে অন্য নেত্রীদের ওপর হামলা করেন বলে অভিযোগ উঠেছে।

এ বিষয়ে ইডেন কালেজ ছাত্রলীগের যুগ্ম আহ্বায়ক রূপা বলেন, ‘আমরা এমন কোনো সমর্থক তৈরি করিনি, যারা শিক্ষার্থীদের মারধর করবে। ছাত্রলীগের যুগ্ম আহ্বায়ক আঞ্জুমান আরা অনুর সর্মথকরা বঙ্গমাতা হলে গিয়ে আমার কর্মীদের ওপর হামলা করেছে। পরে হলের ২০৮ নম্বর কক্ষে গিয়ে আমার আইফোন এবং ৭ হাজার ৫০০ টাকা ছিনতাই করে নিয়ে যায়।’

তিনি আরও বলেন, ‘প্রথম আমি খবর পেয়েছিলাম তারা নাবিলা নামে একটি মেয়েকে মারধর করেছে। পরে আমি সেখানে গেলে তারা আমার ওপরও হামলা চালায়।’

লালবাগ থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) একেএম আশরাফ উদ্দিন বলেন, ‘আমরা শুনেছি হলে মেয়েদের মধ্যে ঝামেলা হয়েছে। কয়েকজন আহত হয়েছেন। ঘটনার পর সেখানে অতিরিক্ত পুলিশ মোতায়েন করা হয়েছে।’


আরও পড়ুন