আমতলীতে ঘূর্ণিঝড় বুলবুলে ক্ষতিগ্রস্তদের মাঝে ত্রাণ সামগ্রী বিতরণ

আমতলীতে ঘূর্ণিঝড় বুলবুলে ক্ষতিগ্রস্তদের মাঝে ত্রাণ সামগ্রী বিতরণ করা হয়েছে।

সোমবার বিকালে উপজেলা চাওড়া ইউপির ঘটখালী ইউনিয়ন পরিষদের সামনে ঘূর্নিঝড় বুলবুলে ক্ষতিগ্রস্থদের মাঝে ত্রাণ সামগ্রী করা হয়।

উপজেলা নির্বাহী অফিসার মনিরা পারভীন ত্রান সামগ্রী বিতরন করেন। এসময় তার সাথে ছিলেন
চাওড়া ইউপি চেয়ারম্যান আখতারুজ্জামান খান বাদল ও ইউপি সদস্যরা।

উপজেলা নির্বাহী অফিসার মনিরা পারভীন বলেন, বরগুনার আমতলী উপজেলা প্রশাসন, জনপ্রতিনিধি, পাশাপাশি, পুলিশ, গণমাধ্যমকর্মী ও বিভিন্ন সেচ্ছাসেবী সংগঠনের সমন্বিত প্রচেষ্টায় দুর্যোগে আমতলীতে মারাত্মক কোনো ক্ষয়-ক্ষতি হয়নি। বরং সফলভাবে ঘূর্ণিঝড় “বুলবুল” মোকাবিলা করা সম্ভব হয়েছে।

সোমবার সাংবাদিকদের সাথে আলাপকালে উপজেলা নির্বাহী অফিসার মনিরা পারভীন আরো বলেন, বঙ্গোপসাগরে সৃষ্ট ঘূর্ণিঝড় বুলবুল আমতলীতে আঘাত হানবে শুনেই উপজেলা প্রশাসন সাধারণ মানুষের জানমালের নিরাপত্তা দিতে প্রস্তুত ছিলো। তিনি বলেন বৃষ্টির পানিতে উপজেলার ২৬ হাজার ৪শ ৬০ হেক্টর জমির আমন ধানের ক্ষেতের ৩০ ভাগ ক্ষতি হয়েছে। রবিশস্যের ২’শ ৫০ হেক্টর শস্যর ৭০ ভাগ ক্ষতিগ্রস্থ হয়েছে। অপরদিকে আরপাঙ্গাশিয়া ইউপির পশর বুনিয়া নদীর বেড়ি বাঁধ ১/৪ অংশ ভেঙ্গে লবন পানি ঢুকে পড়েছে। উপজেলার ৭টি ইউনিয়নে ১ হাজার ৯ শ ২১টি বাড়ী ঘর ক্ষতিগ্রস্থ হয়েছে।

তিনি আরো বলেন, জেলা প্রশাসনের পক্ষ থেকে এখন পর্যন্ত ৪৯ মেট্রিক টন চাল, ১ লাখ ১০ হাজার টাকার ( টি আর ক্যাশ) ৩০০ প্যাকেট শুকনো খাবার ও ৫৫ বান ডেউ টিন ১৬ হাজার টাকার শিশু খাদ্য এবং ১৬ হাজার টাকার গোখাদ্যর জন্য বরাদ্ধ পাওয়া গেছে।

প্রাথমিকভাবে আমরা ক্ষয়-ক্ষতি নির্ধারণ করেছি। পূর্ণাঙ্গ ক্ষয়ক্ষতির তালিকা প্রস্তুত করে উর্ধ্বতন কর্তৃপক্ষের কাছে পাঠিয়ে ক্ষতিগ্রস্থদের পুনর্বাসিত করা হবে।


আরও পড়ুন