জাতীয় - প্রচ্ছদ - November 11, 2019

রাঙ্গার বিচার চাইলেন নুর হোসেনের মা

স্বৈরাশাসক এরশাদের শাসনামলে পুলিশের গুলিতে নিহত হওয়া শহীদ নুর হোসেন মাদকাসক্ত ছিলেন বলে মন্তব্য করার পর জাতীয় পার্টির মহাসচিব মসিউর রহমান রাঙ্গার বিচার চেয়েছেন নুরের মা মরিয়ম বেগম। আজ সোমবার বিকেলে জাতীয় প্রেসক্লাবের সামনে এক প্রতিবাদী অবস্থানে তিনি গণমাধ্যমের সঙ্গে কথা বলেন।

নুর হোসেনের মা বলেন, ‘নুর হোসেন আমার একার ছেলে না, জনগণের ছেলে। আপনারা ১০ নভেম্বর পালন করেন। এখন ওই ব্যক্তি যদি এইরকম কথা বলে, নেশাখোর বলে এর বিচার আমি চাই।’

নুরের মা মরিয়ম বেগম বলেন, ‘একটা নোশাখোর ছেলে কখনো দেশের জন্য জীবন দিতে পারে না। যে লোক দেশের জন্য, জনগণের জন্য জীবন দিতে গেছে সে তো পাগল ছিল না। ৩০ বছর পর এই লোক এত বড় কথা বলেছে। আমি এর বিচার চাই।’

তিনি আরও বলেন, ‘এই কথা যে ব্যক্তি বলেছে তাকে জনগণের কাছে ক্ষমা চাইতে হবে।’

গতকাল রোববার জাতীয় পার্টি আয়োজিত ‘গণতন্ত্র’ দিবসের এক আলোচনায় রাঙ্গা বলেন, ‘নূর হোসেন কে? একটা অ্যাডিকটেড ছেলে। একটা ইয়াবাখোর, ফেন্সিডিলখোর। নূর হোসেনকে নিয়ে গণতান্ত্রিক দুই দল, আওয়ামী লীগ এবং বিএনপি নাচানাচি করে।’

জাপা মহাসচিব আরও বলেন, ‘বিভিন্ন পত্র-পত্রিকায় দেখবেন নূর হোসেন দিবস। সেই নূর হোসেন চত্বর এরশাদ করে দিয়েছেন।’

গণতন্ত্রের জন্য শহীদ হওয়া নূর হোসেনকে নিয়ে সাবেক স্বৈর শাসকের দলের মহাসচিবের এমন মন্তব্যে সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমে তীব্র সমালোচনা চলছে।

প্রসঙ্গত, ১৯৮৭ সালের ১০ই নভেম্বর বুকে ও পিঠে ‘স্বৈরাচার নিপাত যাক, গণতন্ত্র মুক্তি পাক’ স্লোগান লিখে রাস্তায় নেমেছিলেন নুর হোসেন। ওইদিন শেখ হাসিনার নেতৃত্বে আওয়ামী লীগের একটি মিছিলে অংশ নিয়েছিলেন নুর হোসেন। মিছিলটি জিরো পয়েন্ট এলাকায় পৌঁছালে পুলিশ গুলি ছোড়ে। এতে গুলিবিদ্ধ হয়ে মারা যান নুর হোসেন।


আরও পড়ুন