কিশোরগঞ্জে বর্ণাঢ্য আয়োজনে নবান্ন উৎস উদযাপন

কিশোরগঞ্জে বর্ণাঢ্য আয়োজনে নবান্ন উৎসব উদযাপন করা হয়েছে। এ উপলক্ষে জেলা প্রশাসনের উদ্যেগে শনিবার (১৬ নভেম্বর) সকালে শহরের পুরাতন স্টেডিয়াম থেকে একটি সুসজ্জিত শোভাযাত্রা বের হয়ে বিয়াম ল্যাবরেটরি স্কুল মাঠে গিয়ে শেষ হয়।

বিয়াম ল্যাবরেটরি স্কুল মাঠে ফিতা কেটে নবান্ন মেলার উদ্বোধন করেন জেলা প্রশাসক মো. সারওয়ার মুর্শেদ চৌধুরী। নবান্ন মেলার স্টলে স্টলে নতুন ধানের চাল দিয়ে তৈরি করা পিঠা-পুলি, পায়েস, ক্ষীরসহ হরেক রকমের খাবারের পসরা সাজানো হয়। জেলা প্রশাসক মো. সারওয়ার মুর্শেদ চৌধুরী এসব স্টল পরিদর্শন করেন। পরে নবান্ন উৎসব উপলক্ষে আয়োজিত আলোচনা সভায় প্রধান অতিথির বক্তব্য রাখেন জেলা প্রশাসক।

আলোচনা সভায় অন্যদের মধ্যে বক্তব্য রাখেন, স্থানীয় সরকার বিভাগের উপপরিচালক মোঃ আব্দুল্লাহ, অতিরিক্ত জেলা প্রশাসক (সার্বিক) মোঃ আব্দুল্লাহ আল মাসউদ, কৃষি সম্প্রসারণ অধিদপ্তরের উপপরিচালক মোঃ মতিউর রহমান, সদর উপজেলার নির্বাহী অফিসার মোঃ আব্দুল কাদির মিয়া, জেলা মুক্তিযোদ্ধা সংসদের সাবেক কমান্ডার মো. আসাদ উল্লাহ, জেলা প্রেসক্লাবের সভাপতি মোস্তফা কামাল, জেলা আওয়ামীলীগের ধর্ম বিষয়ক সম্পাদক শামসুল ইসলাম ইসলাম খান মাসুম, জেলা আওয়ামীলীগের বন ও পরিবেশ বিষয়ক সম্পাদক এনায়েত করীম অমি, জেলা কৃষকলীগের সাধারণ সম্পাদক আনোয়ার হোসেন বাচ্চু, শহর কৃষকলীগের সভাপতি আলমগীর হোসেন, মহিলা আওয়ামীলীগের যুগ্ন আহবায়ক বিলকিছ বেগম, সাংবাদিক সাইফুল হক মোল্লা দুলু, ছড়াকার জাহাঙ্গীর আলম জাহান, অ্যাডভোকেট আল আমিন প্রমুখ।

পরে সদর উপজেলার শোলমারা এলাকায় আমন ধান কাটারও উদ্বোধন করেন জেলা প্রশাসক মো. সারওয়ার মুর্শেদ চৌধুরী। এ সময় জেলা প্রশাসনের কর্মকর্তাবৃন্দ, কর্মকর্তা কর্মচারীগণ, রাজনৈতিকদলের নেতৃবৃন্দ, জনপ্রতিনিধি, সাংবাদিক ও কৃষক কৃষাণীরা উপস্থিত ছিলেন।

এছাড়া নবান্ন উৎসবকে ঘিরে শিশুদের চিত্রাঙ্কন ও রচনা প্রতিযোগিতা, সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠানসহ গ্রামীণ খেলা, নাচ ও গানের আয়োজন করা হয়।


আরও পড়ুন