বাসা থেকে সাংবাদিকের মরদেহ উদ্ধার

রাজধানীতে মনসুর আলী (৩৩) নামে এক সাংবাদিকের মরদেহ উদ্ধার করেছে পুলিশ। গতকাল শনিবার সন্ধ্যায় বনশ্রীর ভাড়া বাসা থেকে তার মরদেহ উদ্ধার করা হয়।

নিহত সাংবাদিক বাংলা ট্রিবিউনের সহসম্পাদক হিসেবে কর্মরত ছিলেন। তার বাড়ি সিলেটের ফেঞ্চুগঞ্জের কোটালপাড়ায়।

খিলগাঁও জোনের সিনিয়র সহকারী কমিশনার জুলফিকার আলী জানান, সন্ধ্যায় সাড়া না পেয়ে বাসার দরজা ভেঙে তার মরদেহ উদ্ধার করা হয়। আলামত সংগ্রহ করা হয়েছে। ময়নাতদন্তের জন্য মনসুরের মরদেহ ঢাকা মেডিকেল কলেজ (ঢামেক) হাসপাতাল মর্গে পাঠানো হয়েছে। ময়নাতদন্তের পর বিস্তারিত জানা যাবে।

মনসুর আলীর সঙ্গে একই বাসায় থাকতেন মনোজিৎ মিত্র নামে আরেক সাংবাদিক। তিনি বলেন, শুক্রবার (১৬) রাতে আমি এক বন্ধুর বাসায় ছিলাম। সেখান থেকে শনিবার সকালে একটি পরীক্ষায় অংশগ্রহণ করি। এরপর সন্ধ্যা ৬টায় বাসায় এসে দেখি দরজা ভেতর থেকে বন্ধ। দরজা বন্ধ পেয়ে অনেকক্ষণ কলিংবেল বাজাই। মনসুরকে ফোন করি, কিন্তু ভেতর থেকে কোনো সাড়া পাওয়া যাচ্ছিল না। এ অবস্থায় বাড়িওয়ালার সঙ্গে যোগাযোগ করলে জরুরি সেবা নম্বর ৯৯৯-এ ফোন করে বিষয়টি জানানো হয়। এরপর খিলগাঁও থানার পুলিশ এসে দরজা ভেঙে বাসার ভেতরে প্রবেশ করেন।

মনোজিৎ আরও জানান, পুলিশ মনসুরের কক্ষের দরজা ধাক্কা দিয়ে খোলে। এ সময় সে নিজের বিছানার পড়ে ছিল। তার ফ্লোরিং বেডের পাশে বমি, মলমূত্র ছড়ানো অবস্থায় ছিল। পরে মনসুরের নাকের কাছে হাত নিয়ে শ্বাস-প্রশ্বাস অনুভবের চেষ্টা করে পুলিশ সদস্যরা। এরপর তারা মনসুরের ডান হাত উঁচু করে দেখে।

চট্টগ্রাম বিশ্ববিদ্যালয়ের গণযোগাযোগ ও সাংবাদিকতা বিভাগ থেকে স্নাতকোত্তর সম্পন্ন করে ঢাকায় এসে সরাসরি সাংবাদিকতায় যুক্ত হোন মনসুর আলী। তিনি ২০১৩ সালে অর্থসূচক ডটকম-এ কাজ করার মধ্য দিয়ে সাংবাদিকতা শুরু করেন। এরপর ই-বার্তা ও টেকশহরে কিছুদিন কাজ করে দৈনিক ইত্তেফাকে যোগ দেন। ২০১৭ সালে তিনি বাংলা ট্রিবিউনে সহসম্পাদক পদে যোগ দেন।


আরও পড়ুন