হাজী সেলিমের মার খেয়ে কাঁদলেন কাউন্সিলর মানিক

ব্যানারে নাম না থাকায় ক্ষুব্ধ হয়ে তুলকালাম কাণ্ড ঘটিয়েছেন সংসদ সদস্য হাজী সেলিম। নিজ হাতে পেটালেন স্থানীয় কাউন্সিলরকে। অনুষ্ঠানের স্টেজ থেকে মাইক ও সরঞ্জাম ফেলে দেন তার কর্মীরা।

শনিবার রাজধানীর লালবাগে ঢাকা দক্ষিণ সিটি আয়োজিত আব্দুল আলীম খেলার মাঠ উদ্বোধন অনুষ্ঠানের শুরুতে ঘটে এই ঘটনা। কাউন্সিলর ৩০ মিনিট ধরে লাঞ্ছিত হলেও এটিকে তুচ্ছ ঘটনা বলেছেন ঢাকা দক্ষিণের মেয়র সাঈদ খোকন।

জানা গেছে, শহীদ হাজী আবদুল আলীম মাঠের সংস্কারকাজ করেছে ঢাকা দক্ষিণ সিটি করপোরেশন (ডিএসসিসি)। শনিবার ডিএসসিসি মেয়র মোহাম্মদ সাঈদ খোকনের এটি আনুষ্ঠানিকভাবে উদ্বোধন করার কথা ছিল। সে হিসেবে ২৬ নম্বর ওয়ার্ড থেকে সব ধরনের প্রস্তুতি নেওয়া হয়েছিল। মাঠের ভেতরে বড় মঞ্চ করা হয়। পেছনে এলইডি স্ক্রিনসহ প্রজেক্টরের ব্যবস্থা রাখা হয়।

বিকেল ৩টায় এমপি হাজী মোহাম্মদ সেলিম মাঠের ভেতরে প্রবেশ করে অনুষ্ঠানের উদ্বোধনী ডিজিটাল ব্যানারে তার ছবি ও নাম না দেখে ক্ষিপ্ত হয়ে ওঠেন। একপর্যায়ে তিনি নিজেই মঞ্চে উঠে মাইক ফেলে দেন। বিভিন্ন বৈদ্যুতিক সরঞ্জামের সংযোগ বিচ্ছিন্ন করে দেন।

হাজী সেলিমের হাতে মার খেয়ে কাউন্সিলর হাসিবুর রহমান মানিককে অনুষ্ঠানস্থলে কাঁদতে দেখা যায়। তার অভিযোগ, সাংসদ হিসেবে উপযুক্ত সম্মান দেয়ার পরও তাকে মারধর করা হয়েছে। স্টেজে এমপির নাম ছিল। এটা সিটি করপোরেশনের অনুষ্ঠান। এখানে তো এমপির ছবি দেয়া হয় না।

ঘটনাকে কেন্দ্র করে এমপি ও কাউন্সিলরের কর্মীদের মধ্যে উত্তেজনা সৃষ্টি হয়। ঘণ্টাখানেক হট্টগোলের পর সেখানে আসেন দক্ষিণ সিটির মেয়র সাইদ খোকন। মাঠ উদ্বোধনের পর তিনি বলেন, এটা তেমন কিছুই না। মেয়রের পাশে থাকা এমপি হাজী সেলিমকে এনিয়ে জিজ্ঞেস করলে, তিনি কথা বলতে পারেন না বলে ইঙ্গিত দেন। তার পক্ষের নেতাকর্মীদের কাছে জানতে চাইলেও তাদের থামিয়ে দেন এমপি।


আরও পড়ুন