হোসেনপুর - November 27, 2019

হোসেনপুরে দ্বিতীয় শ্রেণির ছাত্রীকে ধর্ষণচেষ্টা, বিচার চেয়ে থানায় অভিযোগ

কিশোরগঞ্জের হোসেনপুর উপজেলায় দ্বিতীয় শ্রেণির এক ছাত্রীকে (০৮) ধর্ষণের চেষ্টার অভিযোগ উঠেছে।

মসজিদে মক্তব পড়তে গেলে ওই ছাত্রীকে আ. রহিম মুন্সী নামের এক ইমাম এই ধর্ষণচেষ্টা করে বলে গত মঙ্গলবার (২৬ নভেম্বর) হোসেনপুর থানায় লিখিত অভিযোগ দিয়েছেন ওই ছাত্রীর মা মোছা. শেফালী বেগম।

অভিযুক্ত আ. রহিম মুন্সী (৪৮) উপজেলার দক্ষিণ গোবিন্দপুর (বোয়ালিয়ারচর) এলাকার মৃত আমির হোসেনের ছেলে।

অভিযোগ ও স্থানীয় সূত্রে জানা গেছে, উপজেলার গণমান পুরুরা সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের দ্বিতীয় শ্রেণি স্কুলছাত্রী গত সোমবার (২৫ নভেম্বর) সকালে গোবিন্দপুর চৌরাস্তা মসজিদে মক্তব্য পড়তে যায়। মক্তব পড়া শেষে ইমাম আ. রহিম মুন্সী অন্যান্য ছাত্র-ছাত্রীকে বিদায় করে দিয়ে ওই ছাত্রীকে পাশের রুমে ডেকে নিয়ে যায়। পরে শরীরের স্পর্শকাতর অঙ্গে হাত দেয় এবং এক পর্যায়ে পায়জামা খোলার চেষ্টা করে আ. রহিম মুন্সী। এসময় ওই স্কুলছাত্রী ডাক চিৎকার ও কান্নাকাটি শুরু করলে কয়েকজন ছোট ছোট ছাত্র এসে দরজা ধাক্কা দিলে দরজা খুলে আ. রহিম মুন্সী পালিয়ে যায়। এ ঘটনা এলাকায় জানাজানি হলে স্থানীয় লোকজন ঘটনাস্থলে আসেন। এ ঘটনার পর থেকে অভিযুক্ত আ. রহিম মুন্সী আত্মগোপনে চলে গেছেন।

হোসেনপুর থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) শেখ মোহাম্মদ মোস্তাফিজুর রহমান জানান, এঘটনায় ওই স্কুলছাত্রীর মা মোছা. শেফালী বেগম থানায় লিখিত অভিযোগ করেছেন। এ ব্যাপারে তদন্ত করে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা নেওয়া হবে।


আরও পড়ুন