ধর্ষণের পর হত্যা, অভিযুক্ত ৪ জনই পুলিশের গুলিতে নিহত

ভারতের দক্ষিণাঞ্চলীয় প্রদেশ তেলেঙ্গানার রাজধানী হায়দারাবাদে সংঘবদ্ধ ধর্ষণের পর পশু-চিকিৎসক তরুণীকে হত্যার ঘটনায় অভিযুক্ত চারজন পুলিশের গুলিতে নিহত হয়েছেন। পুলিশ হেফাজত থেকে পালাতে গিয়ে পুলিশের গুলিতে তাদের মৃত্যু হয়। টাইমস অব ইন্ডিয়ার এক প্রতিবেদনে বলা হয়েছে।

নিহতরা হলেন- মোহাম্মদ আরিফ, নবীন, শিব ও চেন্নাকসভুলু

হায়দরাবাদের পুলিশ কমিনশনার জানান, তদন্তের জন্য ঘটনাস্থলে নিয়ে গিয়েছিল পুলিশ। সেখান থেকেই পালানোর চেষ্টা করে তারা। তারপরই পুলিশের গুলিতে মৃত্যু হয় বলে জানিয়েছেন । যে জায়গাটিতে পশু-চিকিত্সককে পুড়িয়ে হত্যা করা হয় সেখান থেকে কয়েক মিটার দূরে এ ঘটনা ঘটে।

২৮ নভেম্বর রাতে ঘটেছিল সেই মর্মান্তিক ঘটনা। এক তরুণীকে টুল-বুথের কাছে স্কুটার রেখে যেতে দেখে এ চার অভিযুক্ত। পেশায় তারা ছিল ট্রাক ড্রাইভার ও খালাসি। তারা ইচ্ছাকৃত তার স্কুটারের টায়ার পাংচার করে দিয়ে তার ফিরে আসার অপেক্ষা করতে থাকে। সে ফিরে এসে এমন ঘটনা দেখার পর এ চারজন তাকে সাহায্য করার ভান দেখিয়ে এগিয়ে আসে, আর তারপরই ঘটে নৃশংস ধর্ষণ ও হত্যালীলা। প্রথমে চারজনে মিলে ধর্ষণ করে জীবন্ত পুড়িয়ে দেওয়া হয় এ পশু চিকিৎসককে। তারা কোনো প্রমাণ না রাখতেই এমন ন্যক্কারজনক ঘটনা ঘটিয়েছিল।


আরও পড়ুন