বঙ্গবন্ধু বিপিএলের উদ্বোধন

বাংলাদেশ প্রিমিয়ার লিগের বিশেষ সংস্করণ বঙ্গবন্ধু বিপিএল-২০১৯ এর শুভ উদ্বোধন করেছেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। আজ রোববার সন্ধ্যা ৭টার দিকে মিরপুর শেরে বাংলা জাতীয় ক্রিকেট স্টেডিয়ামে তিনি উদ্বোধন করেন এই জাতির জনক বঙ্গবন্ধুকে উৎসর্গ করা এই টুর্নামেন্ট।

এ সময় প্রধানমন্ত্রী বলেন, ‘সকলকে আমার আন্তরিক শুভেচ্ছা জানিয়ে, টুর্নামেন্ট সফল হোক, স্বার্থক হোক এবং উদ্বোধন অনুষ্ঠানের সফলতা কামনা করে আমি বঙ্গবন্ধু বিপিএল-২০১৯ এর উদ্বোধন ঘোষণা করছি।’ বিকেল সাড়ে ৫টা থেকে অনুষ্ঠান শুরু হয়। চলবে রাত সাড়ে ১০টা পর্যন্ত।

প্রধানমন্ত্রী মাঠে আসেন ৬টা ৫০ মিনিটে। এ সময় গুরু জেমস গান করছিলেন। প্রধানমন্ত্রী আসার পর গানের বিরতি দেওয়া হয়। এরপর তিনি উদ্বোধন করেন। উদ্বোধন করার পর মিরপুরের আকাশে পাঁচ মিনিট ধরে জ্বলে ওঠে রংবেরেংয়ের আতশবাজি। এরপর জেমস আবার গান শুরু করেন। তারপর একেএকে মঞ্চ মাতাবেন কৈলাশ খের, সনু নিগম, ক্যাটরিনা কাইফ ও সালমান খান।

আজ উদ্বোধন হলেও মাঠের লড়াই শুরু হবে ১১ ডিসেম্বর থেকে। বঙ্গবন্ধু বিপিএলে থাকছে সাতটি দল। চলবে ১৭ জানুয়ারি পর্যন্ত।  সাত দল নিয়ে ডাবল লিগ রাউন্ডে প্রাথমিকভাবে ম্যাচ হবে ৪২টি। এই ম্যাচগুলোর পরে সেরা চার দল খেলবে প্লে-অফ ম্যাচ। প্লে অফ ম্যাচ হবে তিনটি। আইপিলের পদ্ধতিতে ফার্স্ট কোয়ালিফায়ার ম্যাচ, এলিমেনেটর ম্যাচ ও সেকেন্ড কোয়ালিফায়ার ম্যাচ হবে।

এক নম্বর ও দুই নম্বর দলের মধ্যে ফার্স্ট কোয়ালিফায়ার ম্যাচে মুখোমুখি জয়ী দল সরাসরি ফাইনালে চলে যাবে। এলিমিনেটর ম্যাচে মুখোমুখি হবে তৃতীয় ও চতুর্থ দল। তাদের মধ্যে জয়ী দল ফার্স্ট কোয়ালিফায়ার ম্যাচে হেরে যাওয়া দলের বিপক্ষে সেকেন্ড কোয়ালিফায়ার ম্যাচ খেলবে। এই ম্যাচে জয়ী দল চলে যাবে ফাইনালে। অর্থ্যাৎ প্লে অফের প্রথম দুটি দলের জন্য ফাইনালে যাওয়ার জন্য দুবার সুযোগ থাকবে।


আরও পড়ুন