বিজেপি বাংলার পাপ, ভারতের অভিশাপ : মমতা

‘বাংলার মানুষ কখনোও বিজেপিকে ক্ষমতায় আনবে না। বিজেপি বাংলার পাপ, ভারতের অভিশাপ’। শুক্রবার দীঘায় এক সংবাদ সম্মেলনে ভারতের ক্ষমতাসীন দলের সমালোচনা করে এ কথা বলেছেন ভারতের পশ্চিমবঙ্গের মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়।

এ সময় তিনি জাতীয় নাগরিকপঞ্জি (এনআরসি) ও নাগরিকত্ব আইন প্রসঙ্গে তিনি সবাইকে অভয় দিয়ে বলেন, কোনো ভয় নেই, শান্তিতে থাকুন, বিতাড়িত হয়ার কোন প্রশ্নই নেই। তিনি ওই মন্তব্য করেন।

মমতা বলেন, ‘এনআরসি ও নাগরিকত্ব সংশোধনী বিল ‘ক্যাব’নিয়ে কেন্দ্রীয় সরকারকে বারবার বোঝানোর চেষ্টা করা হয়েছে। সব রাজ্যের আলাদা আলাদা আবেগ রয়েছে। তবু তারা গায়ের জোরে সব কিছু চালিয়ে যাচ্ছে। বাংলায় আমাদের সরকার এনআরসি ও ‘ক্যাব’ কার্যকর করবে না। এখানে সকলেই নাগরিক।’

তিনি বলেন, ‘আসামে আগুন জ্বলছে, অত্যাচার চলছে। আমি চাই জনগণ গণতান্ত্রিক কায়দায় এর প্রতিবাদ করুক। সব জায়গায় কাশ্মীরের কায়দায় সকলের মুখ বন্ধ করে দেওয়া যাবে না। ৫/৬ মাস ধরে মানুষকে জেলে বন্দি করে রাখা যাবে না।’

মমতা বলেন, ‘দেশ স্বাধীন হওয়ার পরে অনেক দিকে নজর রেখে সংবিধান তৈরি হয়েছিল। হঠাৎ করে একটা রাজনৈতিক দল ক্ষমতায় এসে গায়ের জোরে সব নিয়ম পাল্টে দিচ্ছে, এটা হয় না। স্থিতিশীল পরিস্থিতি নষ্ট হচ্ছে, সাম্প্রদায়িকতার রঙ নিয়ে খেলা হচ্ছে।’

তিনি বলেন, ‘আমরাও অনেক দিন বিরোধী দলে ছিলাম, কখনো কারো বিরুদ্ধে এরকম কথা বলিনি, দাঙ্গার পরিবেশ তৈরি করিনি। জনজাতি, বাঙালিদের মধ্যে ভাগ করে দেওয়া হয়েছে!’

মাথা ঠাণ্ডা করে গণতান্ত্রিক পদ্ধতিতেই গণআন্দোলন গড়ে তুলতে হবে বলেও মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় মন্তব্য করেন।

নাগরিকত্ব সংশোধনী আইনের বিরুদ্ধে আগামী ১৬ ডিসেম্বর কোলকাতায় মহামিছিল হবে ঘোষণা করেন মমতা। ওই প্রতিবাদ মিছিলে তিনি নিজে উপস্থিত থাকবেন বলে জানিয়েছেন।


আরও পড়ুন