তাড়াইল - December 15, 2019

তাড়াইলে রেকর্ড সংখ্যক চিকিৎসক যোগদান

কিশোরগঞ্জের তাড়াইল উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে রেকর্ড সংখ্যক চিকিৎসক যোগদান করেছেন।

জানা যায়, উপজেলা ৫০ শয্যা বিশিষ্ট স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে দীর্ঘদিন যাবত চিকিৎসকের স্বল্পতার কারণে স্বাস্থ্যসেবা ব্যাহত হচ্ছিল। মাত্র ০৮ জন চিকিৎসক বিশাল জনগোষ্ঠীর স্বাস্থ্যসেবা দিতে হিমশিম খাচ্ছিল।

এরই মধ্যে সম্প্রতি ১০ জন চিকিৎসক যোগদান করায় স্বাস্থ্যসেবা আরো বেগবান হবে বলে আশা প্রকাশ করেন স্থানীয় জনগণ ও উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের স্বাস্থ্য ও পরিবার পরিকল্পনা কর্মকর্তা ডা. আলমাছ হোসেন।

রোববার (১৫ ডিসেম্বর) দুপুর ২টায় উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের সভাকক্ষে ওই নবাগত ১০ জন চিকিৎসককে উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের পক্ষ থেকে সংবর্ধনা দেয়া হয়।

সংবর্ধনা অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের স্বাস্থ্য ও পরিবার পরিকল্পনা কর্মকর্তা ডা. আলমাছ হোসেন, আবাসিক মেডিকেল অফিসার ডা. বদরুল হাসান, জুনিয়র কনসালটেন্ট (শিশু) ডা. সাখাওয়াত হোসেন, ডা. জিনাত রায়হানা, ডা. ফিরোজ মিয়া, পরিবার পরিকল্পনা কর্মকর্তা আনজুমান ইসলামসহ স্বাস্থ্য বিভাগের কর্মকর্তা ও কর্মচারীরা।

৩৯ তম (বিশেষ) বিসিএস পরীক্ষায় স্বাস্থ্য বিভাগে উত্তীর্ণ যোগদানকৃত চিকিৎসকরা হলেন- ডা. রিফ্য়াত ইসলাম, ডা. পলাশ চন্দ্র দাস, ডা. মো. জাহিদুন নবী দেওয়ান, ডা. শারমিন আক্তার তন্বী, ডা. হুদিয়া তা-দ্বীন, ডা. শান্তা ইসলাম, ডা. মো. ইফতেখার আনাম নোমান, ডা. মো. জাহাঙ্গীর আলম, ডা. হিমেল সাহা হিমু ও ডা. সারোয়ার হোসাইন রুমেল।

উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের আবাসিক মেডিকেল অফিসার ডা. বদরুল হাসান জানান, ৫০ শয্যা বিশিষ্ট হাসপাতালে ২৮ জন চিকিৎসকের পোষ্ট থাকলেও দীর্ঘদিন যাবত ০৮ জন চিকিৎসক দিয়ে স্বাস্থ্যসেবা দিয়ে আসছিলেন। এখন নতুন ১০ জন চিকিৎসক যোগদান করায় ১৮ জন চিকিৎসক দিয়ে বিশাল জনগোষ্ঠীর স্বাস্থ্যসেবা দিতে আরো সহজ ও বেগবান হবে।

নতুন যোগদানকৃত সকল চিকিৎসকদের উষ্ণ অভ্যর্থনা জানিয়ে উপজেলা স্বাস্থ্য ও পরিবার পরিকল্পনা কর্মকর্তা ডা. আলমাছ হোসেন সকল চিকিৎসককে যে কেনোও সময়ে মানুষের স্বাস্থ্যসেবা দেয়ার জন্য নিজেকে প্রস্তুত রাখার আহ্বান জানান।

তিনি যোগদানকৃত চিকিৎসকদের উদ্দেশ্যে বলেন, এই স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে যে কোনোও ধরনের সমস্যার সম্মুখীন হলে আমাকে জানাবেন আমি দ্রুত সমস্যা সমাধানের চেষ্টা করব।

উপজেলা সেনিটারী ইন্সপেক্টর ও নিরাপদ খাদ্য পরিদর্শক আবদুর রউফ তালুকদারের সঞ্চালনায় উক্ত অভ্যর্থনা অনুষ্ঠানে স্থানীয় গন্যমান্য ও সাংবাদিকবৃন্দ উপস্থিত ছিলেন।


আরও পড়ুন