ফখরুল, আব্বাস, গয়েশ্বরসহ বিএনপির ২৩ নেতার আগাম জামিন

বিএনপি মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীরসহ দলটির ২৩ নেতাকে আগাম জামিন দিয়েছেন হাইকোর্ট। নাশকতার অভিযোগে করা মামলায় আজ রোববার তারা হাজির হয়ে আবেদন জানালে বিচারপতি মো. জাহাঙ্গীর হোসেন ও বিচারপতি রিয়াজউদ্দিন খানের বেঞ্চ তাদের আট সপ্তাহের এই জামিন মঞ্জুর করেন।

আসামিদের পক্ষে শুনানি করেন অ্যাডভোকেট জয়নুল আবেদীন ও ব্যারিস্টার মাহবুব উদ্দিন খোকন। তাদের সহায়তা করেন সগীর হোসেন লিয়ন, ব্যারিস্টার একেএম এহসানুর রহমান ও তাহেরুল ইসলাম তৌহিদ।

এর আগে সকালে হাইকোর্টের সংশ্লিষ্ট শাখায় আসামিদের পক্ষে জামিন চেয়ে আবেদন দাখিল করা হয়। পরে ব্যারিস্টার এহসানুর রহমান জানান, হাইকোর্ট তাদের আট সপ্তাহের আগাম জামিন দিয়েছেন। আট সপ্তাহ পরে তাদের নিম্ন আদালতে জামিন চাইতে হবে।

জামিন পাওয়া অন্যদের মধ্যে রয়েছেন বিএনপির স্থায়ী কমিটির সদস্য মির্জা আব্বাস, গয়েশর চন্দ্র রায়, আবদুল্লাহ আল নোমান, মেজর (অবসরপ্রাপ্ত) হাফিজ, অ্যাডভোকেট জয়নুল আবেদীন, শাহ আবু জাফর, সুপ্রিমকোর্ট আইনজীবী সমিতির সম্পাদক ব্যারিস্টার মাহবুব উদ্দিন খোকন, মোয়াজ্জেম হোসেন আলাল, খায়রুল কবির খোকন, হাবিব উন নবী খান সোহেল, ফজলুল হক মিলন, শিমুল বিশ্বাস, শফিউল বারী বাবু, সুলতান সালাহউদ্দিন টুকু, খন্দকার আবু আশফাক, নিপুণ রায় চৌধুরী, কাজী আবুল বাশার, ইসতিয়াক আজিজ উলফাত প্রমুখ।

গত বৃহস্পতিবার বিএনপি চেয়ারপারসন খালেদা জিয়ার জামিন আবেদনের শুনানির দিন ধার্যকে কেন্দ্র করে কড়া নিরাপত্তা বেষ্টনীর মধ্যে গত ১১ ডিসেম্বর বিকেলে সুপ্রিম কোর্ট এলাকায় তিনটি মোটরসাইকেলে আগুন দেওয়ার ঘটনা ঘটে। এ ঘটনায় শাহবাগ থানায় মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীরসহ ১৩৫ জনকে আসামি করে পৃথক দুটি মামলা দায়ের করা হয়। ১২ ডিসেম্বর মামলা করার বিষয়টি নিশ্চিত করেন ডিএমপির রমনা বিভাগের উপ-কমিশনার (ডিসি) সাজ্জাদুর রহমান।


আরও পড়ুন