বাংলাদেশের কাছে পেঁয়াজ বিক্রি করতে চায় ভারত

আমদানি করা পেঁয়াজ  বাংলাদেশের কাছে বিক্রি করতে চায় ভারত। সোমবার এ সংক্রান্ত একটি প্রস্তাব কেন্দ্রীয় বাণিজ্য ও শিল্প মন্ত্রণালয় নয়া দিল্লিতে বাংলাদেশের হাই কমিশনার রকিবুল হকের কাছে দিয়েছে বলে ভারতীয় সংবাদমাধ্যম দ্য প্রিন্ট জানিয়েছে।

গত বছরের শেষ দিকে ভারতে সেঞ্চুরি হাঁকিয়েছিল পেঁয়াজের দাম। দামের ঊর্ধ্বমুখী ও চাহিদার কথা বিবেচনায় রেখে ৩৬ হাজার মেট্রিক টন পেঁয়াজ আমদানির জন্য চুক্তি করে সরকার। এর মধ্যে ১৮ হাজার মেট্রিক টন পেঁয়াজ দেশটিতে এসে পৌঁছেছে। তবে মূল্যবৃদ্ধির কারণে অনেকেই পেঁয়াজ কেনা বন্ধ করে দেন। চাহিদা কমে যাওয়ায় রাজ্য সরকারগুলিও কেন্দ্রের কাছ থেকে পেঁয়াজ নিতে চাইছে না।

এক কর্মকর্তা বলেন, ‘বন্দরে আসা পেঁয়াজের মধ্যে রাজ্য সরকারগুলি কেবল তিন হাজার মেট্রিক টন ছাড় করেছে। বাকী পেঁয়াজ মুম্বাইয়ের জেএনপিটি বন্দরের গুদামে পড়ে আছে’।

মোদি সরকারের এক জ্যেষ্ঠ কর্মকর্তা জানিয়েছেন, সোমবার কেন্দ্রীয় বাণিজ্য মন্ত্রণালয়ের সঙ্গে দিল্লিতে বাংলাদেশের হাই কমিশনার রকিবুল হকের সঙ্গে বৈঠক হয়েছে। এতে আমদানি করা পেঁয়াজ বাংলাদেশকে কিনতে অনুরোধ জানানো হয়েছে।

প্রসঙ্গত, অভ্যন্তরীণ উৎপাদন  কমে যাওয়ার অজুহাত দেখিয়ে গত বছর বাংলাদেশে পেঁয়াজ রপ্তানি বন্ধ করে দিয়েছিল ভারত। এর পরপরই বাংলাদেশের বাজারে বাড়তে শুরু করে এই পণ্যটির দাম।


আরও পড়ুন