পাকুন্দিয়ায় এ্যাথলেটিকস্ ও গ্রামীণ ক্রীড়া

পাকুন্দিয়া উপজেলায় শেষ হলো আন্ত:স্কুল এ্যাথলেটিক্স ও গ্রামীণ ক্রীড়া প্রতিযোগিতা। কিশোরগঞ্জ জেলা ক্রীড়া অফিসের ব্যবস্থাপনায় অনুষ্ঠিত হওয়া এই প্রতিযোগিতায় সেরা স্কুল হয়েছে পাকুন্দিয়া সরকারি পাইলট উচ্চ বিদ্যালয়।

যুব ও ক্রীড়া মন্ত্রণালয়ের অধিনে থাকা ক্রীড়া পরিদপ্তরের বার্ষিক ক্রীড়া কর্মসূচির আওতায় এই প্রতিযোগিতার আয়োজন করে কিশোরগঞ্জ জেলা ক্রীড়া অফিস। পাকুন্দিয়া উপজেলার ১৪ টি স্কুলের ৭০ জন বালক এবং ৬০ বালিকা অংশ নেয় এই প্রতিযোগিতায়। বালক ছোট বিভাগে ১০০ মিটার দৌড়, লং জাম্প, মোরগ লড়াই বালক বড় বিভাগে ১০০ মিটার দৌড়, গোলক নিক্ষেপ, লং জাম্প বালিকা ছোট বিভাগে ১০০ মিটার দৌড়, লং জাম্প, দড়ি লাফ এবং বলিকা বড় বিভাগে ১০০ মিটার দৌড়, গোলক নিক্ষেপ, ভারসাম্য দৌড় অনুষ্ঠিত হয়। প্রতিটি ইভেন্টে একটি স্কুল থেকে একজন প্রতিযোগী অংশ নেয়ার সুযোগ পায়। ৪ টি ইভেন্টে প্রথম, ৩ টি ইভেন্টে দ্বিতীয় এবং ৬ টি ইভেন্টে তৃতীয় হয়ে সর্বোচ্চ ৩৫ পয়েন্ট নিয়ে চ্যাম্পিয়ন হয়েছে স্বাগতিক পাকুন্দিয়া সরকারি পাইলট উচ্চ বিদ্যালয়।

অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি হিসেবে বিজয়ীদের মাঝে পুরষ্কার তুলে দেন পাকুন্দিয়া উপজেলা চেয়ারম্যান মো: রফিকুল ইসলাম রেনু। অনুষ্ঠানের সভাপতিত্ব করেন পাকুন্দিয়া উপজেলা নির্বাহী অফিসার মো: নাহিদ হাসান।

আয়োজনের সার্বিক ব্যবস্থাপনায় ছিলেন কিশোরগঞ্জ জেলা ক্রীড়া অফিসার আল-আমিন।


আরও পড়ুন