হবিগঞ্জে নিয়ন্ত্রণ হারিয়ে যাত্রীবাস খাদে, নিহত ৩

হবিগঞ্জের বাহুবল উপজেলায় ঢাকা-সিলেট পুরাতন মহাসড়কে নিযন্ত্রন হারিয়ে যাত্রীবাহী বাস খাদে পড়ে দুই মহিলাসহ ৩ জন নিহত হয়েছেন। নিহত আরেকজন হলেন বাসের হেলপার। এ ঘটনায় আহত হয়েছেন আরো ৩০ জন। আহতের উদ্ধার করে বিভিন্ন হাসপাতালে প্রেরন করেছে স্থানীয় লোকজন।

শুক্রবার সকাল সাড়ে ৮টার দিকে উপজেলার কামাইছড়া এলাকার অদূরে পাহাড়ী টার্নিং পয়েন্টে নিয়ন্ত্রন হারিয়ে বাসটি খাদে পড়ে যায়।

নিহতরা হলেন- বাসের হেলপার সদর উপজেলার মড়ুরা গ্রামের আবু সাঈদ (৩০) ও একই উপজেলার দৌলতপুর গ্রামের ইসলাম উদ্দিনের ছেলে কমলা বেগম (৩৫)। তাৎক্ষনিক নিহত অন্য নারীর পরিচয় পাওয়া যায়নি। তবে নিহত ওই নারী সনাতনধর্মের বলে জানায় পুলিশ। তাৎক্ষনিক রশিদপুর গ্যাস ফিল্ডের ক্যারেং দিয়ে গাড়ির নিচ থেকে লাশ গুলি উদ্ধার করা হয়।

জানা যায়, শ্রীমঙ্গল থেকে হবিগঞ্জগামী যাত্রীবাহীবাস (হবিগঞ্জ ব ০৫-০০৩১) কামাইছড়া পাহাড়ী এলাকার টার্নিং পয়েন্টে পৌছলে নিয়ন্ত্রন হারিয়ে বাসটি পাহাড়ের নিচে খাদে পড়ে যায়। তাৎক্ষনিক রশিদপুর গ্যাস ফিল্ডের ক্যারেং দিয়ে তিন জনের লাশ উদ্ধার করা হয়।

খবর পেয়ে শায়েস্তাাগঞ্জ ফায়ার সার্ভিসের একটি ইউনিট ঘটনাস্থলে পৌছে পুরোপুরি সকল আহতদের উদ্ধার করতে সক্ষম হয়। এ ঘটনায় ঢাকা সিলেট পুরাতন মহাসড়কে যান চলাচল বন্ধ হয়ে যায়। খবর পেয়ে বাহুবল মডেল থানা পুৃলিশ ও সাতগাও হাইওয়ে থানা পুলিশ ঘটনাস্থলে পৌছে যান চলাচল স্বাভাবিক করেন।

বাহুবল মডেল থানার ওসি মোহাম্মদ কামরুজ্জামান দুর্ঘটনার বিষয়টির সত্যতা নিশ্চিত করে বলেন, তিন জনের মধ্যে দুইরজনের পরিচয় পাওয়া গেছে। আহতদের উদ্ধার করে হবিগঞ্জ আধুনিক সদর হাসপাতাল ও বাহুবল উপজেলা হাসপাতালে প্রেরন করা হয়েছে।


আরও পড়ুন