জাতীয় - February 16, 2020

মুজিববর্ষে ১৬ লাখ টাকার বাড়ি পাবেন ১৪ হাজার মুক্তিযোদ্ধা

অসচ্ছল মুক্তিযোদ্ধাদের জন্য গৃহ নির্মাণ কর্মসূচি গ্রহণ করেছে সরকার। মুজিববর্ষে ১৪ হাজার অসচ্ছল মুক্তিযোদ্ধাকে ১৬ লাখ টাকা ব্যয়ে একটি করে বাড়ি তৈরি করে দেয়া হবে বলে জানিয়েছেন মুক্তিযুদ্ধবিষয়ক মন্ত্রী আ ক ম মোজাম্মেল হক।

রোববার জাতীয় সংসদ অধিবেশনে কার্যপ্রণালী বিধির ৭১ বিধিতে জরুরি জনগুরুত্বসম্পন্ন বিষয়ে শাজাহান খানের নোটিশের জবাবে মন্ত্রী এ তথ‌্য জানান। স্পিকার ড. শিরীন শারমিন চৌধুরী অধিবেশনে সভাপতিত্ব করেন।

মুক্তিযুদ্ধবিষয়ক মন্ত্রী বলেন, মুক্তিযোদ্ধাদের জন্য মুজিববর্ষে বাড়ি নির্মাণের কর্মসূচি নেয়া হয়েছে। ১৪ হাজার অসচ্ছল মুক্তিযোদ্ধাকে ১৬ লাখ টাকা ব্যয়ে একটি করে বাড়ি করে দেব। মুজিববর্ষে মুক্তিযোদ্ধাদের এভাবে সম্মানিত করা হবে। স্বাধীনতার ৫০ বছর পূর্তিতেও মুক্তিযোদ্ধাদের জন্য অনেক উপহার থাকবে। মুক্তিযোদ্ধারা অনেক সুযোগ-সুবিধা পাচ্ছেন।

তিনি আরো বলেন, ১৯৯৬ সালে আওয়ামী লীগ ক্ষমতায় আসার পর মুক্তিযোদ্ধাদের প্রথম সম্মানিত করা শুরু হয়। তখন ৩০০ টাকা করে ভাতা দেয়া হতো ৪০ হাজার মুক্তিযোদ্ধাকে। সেখান থেকে পর্যায়ক্রমে বাড়িয়ে আজ ১২ হাজার টাকায় উন্নীত হয়েছে এবং ৪০ হাজারের স্থলে শতভাগ মুক্তিযোদ্ধাই এ ভাতার আওতাভুক্ত হয়েছেন। আগামী বাজেটে ভাতা বাড়ানোর বিষয়টি বিবেচনাধীন।

আ ক ম মোজাম্মেল হক জানান, চিকিৎসার জন্য প্রত্যেক বিশেষায়িত হাসপাতালকে ৫০ লাখ থেকে ১ কোটি টাকা আগাম দিয়েছি, যাতে কোনো মুক্তিযোদ্ধা টাকার অভাবে চিকিৎসা না করে ফিরে না যান। স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয়ের সঙ্গে আমাদের সমঝোতা স্মারক স্বাক্ষরিত হয়েছে। সেই চুক্তি অনুযায়ী ৫০ শতাংশ টাকা খরচ করার পর হাসপাতাল কর্তৃপক্ষ যখন দাবি করে, তখনই তাদের টাকা বরাদ্দ হয়ে যায়।


আরও পড়ুন