লিটন-তামিমের জোড়া সেঞ্চুরিতে বাংলাদেশের সংগ্রহ ৩২২

জিম্বাবুয়ের বিপক্ষে সিরিজের শেষ ম্যাচে রেকর্ডের ছড়াছড়ি বাংলাদেশের। টস হেরে প্রথমে ব্যাট করতে নেমে বাংলাদেশের দুই ওপেনার লিটন দাস এবং তামিম ইকবালের দুর্দান্ত ব্যাটিংয়ে ৪৩ ওভারে ৩ উইকেট হারিয়ে বাংলাদেশ তোলে ৩২২ রান। উদ্বোধনী জুটিতে লিটন-তামিম তোলেন রেকর্ড ২৯২ রান। যা যেকোনো উইকেটে বাংলাদেশের সর্বোচ্চ রানের জুটি। আর দেশের ইতিহাসে তামিম ইকবালের ১৫৮ রানের ব্যক্তিগত সর্বোচ্চ রানের রেকর্ড ভেঙে লিটন দাস খেলেন ১৭৬ রানের বিধ্বংসী এক ইনিংস।

বিদায়ী টস জয়ে রাঙেনি ক্যাপ্টেন মাশরাফি বিন মর্তুজার। তবে সিরিজে টানা তৃতীয়বারের মতো প্রথমে ব্যাটিংয়ে নেমেছে বাংলাদেশ। টসে জিতে জিম্বাবুয়ের অধিনায়ক শন উইলিয়ামস ফিল্ডিংয়ের সিদ্ধান্ত নিয়েছেন। টাইগার দলে এসেছে চার পরিবর্তন। আফিফ হোসেন ও মোহাম্মদ নাইমের হয়েছে ওয়ানডে অভিষেক।

জিম্বাবুয়ের বিপক্ষে তিন ওয়ানডে সিরিজ শুরুর আগেই অধিনায়কত্ব ছাড়ার বিষয়টি জানিয়ে দিয়েছিলেন মাশরাফি। বৃহস্পতিবার দিলেন অধিনায়কত্ব ছাড়ার আনুষ্ঠানিক ঘোষণা। এই ম্যাচ জিতলেই প্রথম বাংলাদেশি অধিনায়ক হিসেবে ৫০তম ওয়ানডে ম্যাচ জিতবেন মাশরাফি।

জিম্বাবুয়েকে আগের দুই ম্যাচে হারিয়ে এক ম্যাচ হাতে রেখেই সিরিজ জিতে নিয়েছে বাংলাদেশ। শেষ ম্যাচটি জিতলেই শন উইলিয়ামস-ব্রেন্ডন টেইলরদের হোয়াইটওয়াশ করবে টাইগাররা।

মাশরাফির নেতৃত্বের শেষ ম্যাচে খেলছেন না মুশফিকুর রহিম। বাংলাদেশের এ অভিজ্ঞ উইকেটরক্ষক-ব্যাটসম্যানকে বিশ্রামে দিয়ে দলে অন্তর্ভূক্ত করা হয়েছে সৌম্য সরকারকে। তবে এ বাঁ-হাতি ব্যাটসম্যানকেও একাদশের বাইরে রাখা হয়েছে। সৌম্যের পরিবর্তে সুযোগ দেওয়া হয়েছে দুই তরুণ ব্যাটসম্যান মোহাম্মদ নাঈম ও আফিফ হোসেনকে। এছাড়া একাদশে ফিরেছেন মোস্তাফিজুর রহমান ও মোহাম্মদ সাইফউদ্দীন।

বাংলাদেশ একাদশ:

তামিম ইকবাল, লিটন দাশ (উইকেটরক্ষক), মোহাম্মদ নাঈম, আফিফ হোসেন, মোহাম্মদ মিঠুন, মাহমুদউল্লাহ রিয়াদ, মোহাম্মদ সাইফউদ্দীন, মেহেদী হাসান মিরাজ, মাশরাফি বিন মর্তুজা (অধিনায়ক), তাইজুল ইসলাম, মোস্তাফিজুর রহমান।

জিম্বাবুয়ে একাদশ:

টিনাশে কামুনহুকামউই, রেগিস চাকাবা, ব্রেন্ডন টেইলর, শন উইলিয়ামস (অধিনায়ক), ওয়েসলি মাধেভেরে, সিকান্দার রাজা, রিচমন্ড মুতুমবামি (উইকেটরক্ষক), টিনোটেন্ডা মুতোমবোজি, ডোনাল্ড টিরিপানো, কার্ল মুম্বা, চার্লটন টিশুমা।


আরও পড়ুন