করোনার প্রভাবে পাকিস্তান সফর নিয়েও শঙ্কা

করোনাভাইরাসে মৃতের সংখ্যা বেড়ে ৪ হাজার ২৫৮ জনে দাঁড়িয়েছে। এ ভাইরাসে আক্রান্ত হয়েছে ১ লাখ ১৬ হাজার ৬০০ জন। অপরদিকে করোনায় আক্রান্ত ৬৪ হাজার ২১৪ জন চিকিৎসায় সুস্থ হয়েছে। ইতোমধ্যে বিশ্বের ১১১টি দেশ ও অঞ্চলে এই ভাইরাসের প্রকোপ ছড়িয়েছে। করোনাভাইরাসের প্রভাব পড়েছে ক্রীড়াঙ্গনেও। একের পর এক স্থগিত হয়ে যাচ্ছে বিভিন্ন টুর্নামেন্ট।

এপ্রিলের শুরুতে পাকিস্তান সফরে একটি ওয়ানডে ও একটি টেস্ট ম্যাচ খেলার কথা রয়েছে বাংলাদেশ দলের। তবে করোনাভাইরাস আতঙ্কে পাকিস্তান সফর নিয়েও অনিশ্চয়তা দেখা দিয়েছে।

এ ব্যাপারে বুধবার মিরপুরে জিম্বাবুয়ের বিপক্ষে দুই ম্যাচের টি-টোয়েন্টি সিরিজের শেষ খেলাটি শুরুর আগে বাংলাদেশ ক্রিকেট বোর্ডের (বিসিবি) সভাপতি নাজমুল হাসান পাপন বলেন, দেখি! আমরা পাকিস্তান সফর নিয়েও কথা বলব। এ প্রসঙ্গগুলো ধাপে ধাপে আসবে। তা নিয়ে আমরা বোর্ডেও আলোচনায় বসব।

আগামী ১ এপ্রিল পাকিস্তানের করাচিতে একমাত্র ওয়ানডে আর ৫-৯ এপ্রিল সিরিজের দ্বিতীয় টেস্ট খেলার কথা রয়েছে টাইগারদের।

এর আগে প্রথম দফায় ৩টি টি-টোয়েন্টি ম্যাচ খেলে দেশে ফেরে বাংলাদেশ দল। আর একটি টেস্ট ম্যাচ খেলে আসে মুমিনুল হকরা। তৃতীয় দফায় ফের পাকিস্তান সফরে যাওয়ার কথা ছিল টাইগারদের।

ক্রিকেট বোর্ড করোনা ভাইরাসের পরিস্থিতি নিবিড়ভাবে পর্যবেক্ষণ করছে। পরিস্থিতি এখনের চেয়ে খারাপ হলে কোনোরকম ঝুঁকি নেবে না বিসিবি।

এদিকে করোনাভাইরাসের কারণে অনেকটা বাধ্য হয়ে জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের জন্মশতবার্ষিকী উপলক্ষে আয়োজিত হতে যাওয়া এশিয়া একাদশ ও বিশ্ব একাদশের মধ্যকার প্রীতি ম্যাচ দুটি স্থগিত করেছে বিসিবি। স্থগিত করা হয়েছে আগামী ১৮ মার্চ হতে যাওয়া এ আর রহমানের কনসার্টও।


আরও পড়ুন