গরমে করোনার প্রকোপ কমার আশায় বিজ্ঞানীরা

গরম এলে নভেল করোনাভাইরাসের প্রকোপ কমবে বলে আশা করছেন নিউইয়র্কের বিজ্ঞানীরা। নতুন একটি গবেষণায় এমন সম্ভাবনা দেখছেন তারা।

সোশ্যাল সায়েন্স রিসার্চ নেটওয়ার্কে গবেষণারটির ফলাফল প্রকাশ করা হয়েছে। সেখানে বলা হচ্ছে, গরম আবহাওয়া এবং আর্দ্র অঞ্চলে ভাইরাসটি তুলনামূলক কম ছড়ায়।

কাসিম বুখারী ও ইউসুফ জামিল নামের দুই বিজ্ঞানী এই গবেষণায় নেতৃত্ব দিয়েছেন। তারা বলছেন, যেসব অঞ্চলের তাপমাত্রা ৩ থেকে ১৭ ডিগ্রি সেলসিয়াসের মধ্যে সেখানে বেশি ছড়িয়েছে কভিড-১৯ রোগটি। বৈশ্বিক পরিসংখ্যান বিবেচনায় নিয়ে তারা দেখেছেন, এই তাপমাত্রার অঞ্চলগুলোতে সংক্রমণের হার ৯০ শতাংশ।

চীনের জাতীয় স্বাস্থ্য সংস্থার গবেষণায়ও বলা হয়েছে, তাপমাত্রা বাড়ার পর ভাইরাসের সংক্রমণ কমেছে।

সংস্থাটির বিবৃতিতে বলা হয়েছে, বেশির ভাগ ভাইরাসের অস্তিত্ব থাকে অক্টোবর থেকে মার্চ অথবা এপ্রিল পর্যন্ত। দেখা গেছে ঠান্ডা ও শুস্ক বাতাসে ভাইরাসের জীবাণু বেশি সক্রিয় থাকে।

২০০৭ সালের দিকে বিভিন্ন গবেষণায় বলা হয়, উচ্চ তাপমাত্রা ও বাতাসে আর্দ্রতা বেশি থাকলে ইনফ্লুয়েঞ্জার জীবাণুর সক্রিয়তা কমে যায়। আর্দ্রতার মাত্রা উচ্চপর্যায়ে থাকলে ভাইরাস ছড়ানো পুরোপুরি বন্ধ হয়ে যায়। গরম বাতাসে আর্দ্রতা বেশি থাকে বলেই ভাইরাস ছড়াতে পারে না। শীতকালে ঘটে এর উল্টোটা।

স্বাভাবিক ভাইরাসের মতো করোনার ক্ষেত্রে ব্যাপারটি সত্য হবে কি না, তা নিয়েই প্রশ্ন।

সোশ্যাল সায়েন্স রিসার্চ নেটওয়ার্কে প্রকাশিত গবেষণায়ও সেই শঙ্কার কথা বলা হয়েছে, ‘পুরোপুরি গরম না পড়লে বিষয়টি নিশ্চিত হওয়া যাচ্ছে না। তবে আমাদের বিশ্বাস গরমে নভেল করোনাভাইরাস দুর্বল হবেই।’


আরও পড়ুন