কিশোরগঞ্জে অভিযান চালাতে গিয়ে ম্যাজিস্ট্রেট নিজেই আটক!

কিশোরগঞ্জের কটিয়াদীতে ভ্রাম্যমাণ আদালত পরিচালনা করতে গিয়ে এক ভুয়া ম্যাজিস্ট্রেটসহ দুই সহযোগী আটক হয়েছেন। সোমবার (৩০ মার্চ) রাতে কটিয়াদী বাসস্ট্যান্ডের একটি ফার্মেসীতে অভিযান চালানোর সময় তাদের আটক করা হয়।

কটিয়াদী থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) এম এ জলিল মুক্তিযোদ্ধার কণ্ঠকে বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন।

মঙ্গলবার (৩১ মার্চ) দুপুরে ওই তিন প্রতারককে কিশোরগঞ্জ জেল হাজতে প্রেরণ করা হয়।

আরও পড়ুন : চিকিৎসকদের জন্য পিপিই পাঠালেন বিসিবি সভাপতি

জানা যায়, সোমবার রাত সাড়ে ১০টার দিকে বাসস্ট্যান্ড এলাকায় ইসরাইল মিয়ার ফার্মেসীতে ম্যাজিস্ট্রেট পরিচয়ে সাবরিনা সুলতানা এ্যানি (২৮) ও তার দুই সহযোগী এইচ এম আব্বাস (৩২) এবং শাজিদুল হক রাসেল (২৬) অভিযানের নামে টাকা দাবি করলে এলাকাবাসী তাদের আটক করেন। পরে উত্তেজিত জনতা তাদের পুলিশে দেয়।

আরও পড়ুন : করোনায় ফাঁকা কিশোরগঞ্জ

আটককৃতরা হলেন- ঢাকার উত্তর বাড্ডা হোসেন মার্কেট এলাকার অজয় চন্দ্রন ব্যানার্জির কন্যা সাবরিনা সুলতানা এ্যানি। সে নিজেকে ভ্রাম্যমাণ আদালতের নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট বলে পরিচয় দেয়। দুই সহযোগী কটিয়াদী উপজেলার চাতল গ্রামের মনসুর উদ্দিনের পুত্র এইচ এম আব্বাস, একই উপজেলার শাজিদুল হক রাসেল।

আরও পড়ুন : বাড়ি বাড়ি গিয়ে ত্রাণ দিচ্ছেন ডিসি

এ বিষয়ে অতিরিক্ত পুলিশ সুপার (হোসেনপুর সার্কেল) সোনাহর আলী শরীফ মুক্তিযোদ্ধার কণ্ঠকে জানান, প্রাথমিক জিজ্ঞাসাবাদের আটককৃতরা এই এলাকায় প্রতারণা করতে আসেন বলে স্বীকার করেছেন। তাদের বিরুদ্ধে কটিয়াদী থানায় মামলা করা হয়েছে।


আরও পড়ুন