করিমগঞ্জ - May 23, 2020

করিমগঞ্জে ধারাবাহিক ইফতার বিতরণ কার্যক্রম সম্পন্ন করেছে পৌর কৃষক লীগ

কিশোরগঞ্জের করিমগঞ্জে অসহায় ছিন্নমূল পথচারীদের মাঝে ধারাবাহিক ইফতার বিতরণ কার্যক্রম সম্পন্ন করেছে করিমগঞ্জ পৌর কৃষক লীগ।

করিমগঞ্জ সরকারি পাইলট মডেল উচ্চ বিদ্যালয়ের প্রধান ফটকের সামনে ১৪০ জনের মাঝে ইফতার বিতরণ করে এ বিতরণ কার্যক্রম সম্পন্ন করা হয়। ধারাবাহিক ইফতার বিতরণ কার্যক্রমের সার্বিক আয়োজন করে করিমগঞ্জ পৌর কৃষক লীগ।

কিশোরগঞ্জ জেলা কৃষক লীগের সাধারণ সম্পাদক জননেতা আনোয়ার হোসেন বাচ্চু ভাইয়ের নির্দেশে পবিত্র ৩য় রমজান থেকে শুরু হয়ে ২৯ রমজান পর্যন্ত পৌরসভার ৯টি ওয়ার্ডে ধারাবাহিকভাবে ইফতার বিতরণ কার্যক্রম চালানো হয়। পৌরসভার ৯টি ওয়ার্ডে স্ব-স্ব সভাপতি/সম্পাদক/সদস্য ইফতার বিতরণ কার্যক্রম পরিচালনা করেন।

শুরু থেকে ইফতার তৈরি, প্যাকেটিং ও বিতরণ পর্যন্ত সার্বিকভাবে সহযোগিতা করছে পৌর ছাত্রলীগসহ উপজেলা ছাত্রলীগের নেতাকর্মীরা। সমাপনী ইফতার বিতরণকালে উপস্থিত ছিলেন করিমগঞ্জ উপজেলা কৃষক লীগের সাধারণ সম্পাদক মোঃ দ্বীন ইসলাম, করিমগঞ্জ পৌর কৃষক লীগের আহ্বায়ক সাংবাদিক আব্দুল জলিল, পৌর কৃষক লীগের যুগ্ন-আহ্বায়ক আনিছুর রহমান টুকু, করিমগঞ্জ উপজেলা ছাত্রলীগ নেতা করিমগঞ্জ সরকারি অনার্স কলেজ শাখা ছাত্রলীগের সভাপতি আবুল হায়াত রনি, উপজেলা ছাত্রলীগ নেতা রকি চৌধুরী, উপজেলা ছাত্রলীগ নেতা মোঃ তোফায়েল, ৫নং ওয়ার্ড কৃষক লীগের ভারপ্রাপ্ত সভাপতি আব্দুল কুদ্দুছ, সাধারণ সম্পাদক দেলোয়ার হোসেন নুরুল্লা, পৌর ছাত্রলীগ নেতা মোঃ জাহাঙ্গীর আলম মোড়ল, পৌর ছাত্রলীগ নেতা মোঃ সাকিব প্রমূখ।

এছাড়াও সমাপনী ইফতার বিতরণে বিশেষ অতিথি হিসাবে উপস্থিত ছিলেন, বাংলাদেশ ছাত্রলীগের কার্যনির্বাহী সদস্য সাখাওয়াত হোসেন মিলন, উত্তরা পশ্চিম থানা ছাত্রলীগের ভাইস-প্রেসিডেন্ট মোঃ মঞ্জিল হোসেন। ইফতার বিতরণ শেষে করোনা ভাইরাস প্রাদূর্ভাবের করণে সামাজিক দুরত্ব বজায় রেখে স্বাস্থ্যবিধি অনুসরণ করে করিমগঞ্জ সরকারি পাইলট মডেল উচ্চ বিদ্যালয় মাঠে সংক্ষিপ্ত পরিসরে এক ইফতার পার্টির আয়োজন করা হয়। এতে ছাত্রলীগ, যুবলীগ, স্বেচ্ছাসেবক লীগসহ সাধারণ জনতাও অংশগ্রহণ করে।

এ বিষয়ে কিশোরগঞ্জ জেলা কৃষক লীগের সাধারণ সম্পাদক জননেতা আনোয়ার হোসেন বাচ্চু বলেন, পৌর কৃষক লীগের এমন মানবিক উদ্যোগ নিঃসন্দেহে প্রসংশনীয়। এছাড়াও প্রাণঘাতি করোনা ভাইরাসের কারণে আমার জেলার কৃষকেরা যখন বোরো ধান কাটতে শ্রমিক সংকটে হিমশিম খাচ্ছিল তখন কৃষকের সংকট মেটাতে জেলা অন্যান্য ইউনিটের তুলনায় করিমগঞ্জ পৌর কৃষক লীগ অনন্য ভূমিকা পালন করেছে। আমার বিশ্বাস বাংলাদেশের যেকোনো দূর্যোগে করিমগঞ্জ পৌর কৃষক লীগ অগ্রনী ভূমিকা পালন করবে।

উপজেলা কৃষক লীগের সভাপতি আবু তাহের বলেন, পৌর কৃষক লীগের এমন মানবিক উদ্যোগকে স্বাগত জানাই। আমার উপজেলা কৃষক লীগের অন্যান্য ইউনিটের মধ্যে পৌর কৃষক লীগ সাংগঠনিক কার্যক্রমসহ যে কোনো মানবিক কাজে অগ্রগামী।

উপজেলা কৃষক লীগের সাধারণ সম্পাদক মোঃ দ্বীন ইসলাম বলেন, পৌর কৃষক লীগের কমিটি দেয়ার পর থেকে তাদের সকল কর্যক্রম প্রত্যক্ষ করে আসছি। তারা এই দূর্যোগকালীন সময়ে উপজেলা কৃষক লীগের পাশাপাশি জেলা কৃষক লীগের কৃষক সহায়তা কার্যক্রমে সম্মূখ অংশগ্রহণ করেছে।

বাংলাদেশ ছাত্রলীগ কার্যনির্বাহী কমিটির সদস্য সাখাওয়াত হোসেন মিলন বলেন, আমি ছাত্রলীগের কেন্দ্রীয় রাজনীতিতে সম্পৃক্ত বিধায় ছাত্রলীগের রাজনীতির পাশাপাশি দেশের বিভিন্ন জেলা-উপজেলার আওয়ামীলীগের অন্যান্য সহযোগী সংগঠনের এক্টিভিটিস সম্পর্কে কিছুটা হলেও ধারণা আছে। সেই অভিজ্ঞতা থেকে বলবো, করিমগঞ্জ পৌর কৃষক লীগ সাংগঠনিকভাবে অনুকরণীয়।

উপজেলা ছাত্রলীগ নেতা ও করিমগঞ্জ সরকারি অনার্স কলেজ শাখা ছাত্রলীগের সভাপতি আবুল হায়াত রনি বলেন, করিমগঞ্জ পৌর কৃষক লীগ সাংগঠনিকভাবে স্বচ্ছ ও এক্টিভ ইউনিট। তাদের কার্যক্রম ভার্চুয়াল যুগের ফোটোশেন নয়, বাস্তবিকভাবে কৃষকবান্ধব রাজনীতি পরিচালনা করে আসছেন।

এছাড়াও, বিশেষ করে ( পৌর কৃষক লীগের আহ্বায়ক সাংবাদিক আব্দুল জলিল ও যুগ্ন-আহ্বায়ক আনিছুর রহমান টুকু) তাদের উদ্যোগে করোনা পরিস্থিতির কারণে খাদ্য সংকটসহ মানবেতর জীবনযাপন করছেন পৌর এলাকার এমন ১০০০ (এক হাজার) পরিবারকে ধাপে ধাপে মানবিক সহায়তা প্রদান করেছেন।

পৌর কৃষক লীগের যুগ্ন-আহ্বায়ক মোঃ আনিছুর রহমান টুকু বলেন, এই দূর্যোগকালীন সময়ে আমরা আমাদের সাধ্যমত চেষ্টা করেছি কৃষকসহ সাধারণ কেটে খাওয়া অসহায় ছিন্নমূল মানুষের পাশে দাঁড়াতে। আমাদের ক্ষুদ্র প্রয়াসে বিশেষ অনুপ্রেরণা যুগিয়েছেন আমার আহ্বায়ক, উপজেলা কৃষক লীগ ও জেলা কৃষক লীগ। বিশেষ করে আমার আহ্বায়ক সাংবাদিক আব্দুল জলিল স্বচ্ছ ও ক্রিয়েটিভ রাজনীতিক। করিমগঞ্জের আওয়ামীলীগ, ছাত্রলীগ, যুবলীগসহ অাওয়ামীলীগের অন্যান্য সহযোগি সংগঠনের সহযোগীতা পেলে তাঁর নেতৃত্বে করিমগঞ্জ পৌর কৃষক লীগকে বাংলাদেশের রাজনীতিতে অনন্য ইউনিট হিসাবে দাঁড় করাবো।


আরও পড়ুন