ঝিনাইদহে ছেলেকে হত্যার পর মায়ের আত্মহত্যা

ঝিনাইদহের মহেশপুর উপজেলার নেপা ইউনিয়নের বাকোশপোতা গ্রামে ৬ বছরের ছেলে রিফাতকে হত্যা করে মা রিতা খাতুন আত্মহত্যা করেছেন। শুক্রবার রাতে এ ঘটনা ঘটে।

স্থানীয়রা বলছেন, শুক্রবার রাতে বাকোশপোতা গ্রামে বাসিন্দা মামুন হোসেন তাদের ঘরের বারান্দায় ও তার স্ত্রী রিতা খাতুন ৬ বছরের সন্তান রিফাতকে নিয়ে ঘরের মধ্যে ঘুমিয়ে ছিলেন। রাতের কোনো এক সময় সময় মা রিতা খাতুন তার সন্তান রিফাতকে গলায় ফাঁস দিয়ে হত্যা করে নিজেও গলায় ফাঁস নিয়ে আত্মহত্যা করেন।

শনিবার সকালে স্বামী মামুন হোসেন টের পেয়ে প্রতিবেশীদের খবর দিলে তারা পুলিশকে খবর দেন। পরে পুলিশ তাদের মরদেহ উদ্ধার করে। তবে ঠিক কি কারণে এ ঘটনা তা কেউ জানাতে পারেনি।

মহেশপুর থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) মোর্শেদ হোসেন খাঁন জানান, সন্তানকে হত্যার পর মায়ের আত্মহত্যা এমন একটি সংবাদে ওই গ্রামে পুলিশ পাঠানো হয়েছে। বিস্তারিত পরে জানানো যাবে।


আরও পড়ুন