সামনে আরও ভয়ঙ্কর দিন আসছে : ডব্লিউএইচও

করোনা মহামারি নিয়ে আবারও বড় ধরনের হুঁশিয়ারি উচ্চারণ করলেন বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থার (ডব্লিউএইচও) প্রধান টেড্রোস আধানম গেব্রেয়াসুস।

তিনি সোমবার বিশ্বের দেশগুলোকে আরও সতর্ক হওয়ার আহ্বান জানিয়ে বলেন, অন্যথায় পরিস্থিতি ভয়াবহ হতে পারে এবং সামনে আরও ভয়াবহ দিন অপেক্ষা করছে।

সোমবার এক সংবাদ সম্মেলনে ডব্লিউএইচও প্রধান টেড্রোস সতর্ক করে দিয়ে বলেন, ‌‘সামনে করোনাভাইরাসের সংক্রমণের ভয়াবহ পরিস্থিতি অপেক্ষা করছে। এই রকম পরিবেশ ও অবস্থা বিরাজমান থাকলে, আমরা সেই ভয়াবহ পরিস্থিতির আশঙ্কা করছি।’

তার ভাষায়, ‘বিশ্বের সব ক’টি দেশের সরকারকে এ বিষয়ে সঠিক পদক্ষেপ গ্রহণের পাশাপাশি আগের মতোই পরীক্ষা, শনাক্ত, আইসোলেশন ও কোয়ারেন্টাইন চালিয়ে যেতে হবে। আমরা চাই চলমান পরিস্থিতির সমাপ্তি ঘটুক এবং প্রতিটি জীবন রক্ষা পাক। কিন্তু কঠিন বাস্তবতা হলো, এ পরিস্থিতির অবসান হচ্ছে না।’

তিনি আরও বলেন, কিছু দেশে ভাইরাসটির সংক্রমণ নিয়ন্ত্রণে অগ্রগতি হলেও মহামারির দ্রুত বিস্তার ঘটছে। তাই সামনের মাসগুলোতে বিশ্বের আরও বেশি সহনশীলতা, ধৈর্য ও উদারতার প্রয়োজন হবে।

ডব্লিউএইচও’র করোনা সংক্রান্ত ভার্চুয়াল সংবাদ সম্মেলনে টেড্রোস বলেন,‘গত ৬ মাস আগে আমরা কেউই ভাবতে পারিনি, কীভাবে গোটা বিশ্ব এবং আমাদের জীবনকে মারাত্মক এক টালমাটাল অবস্থার মধ্যে ফেলে দেবে এই নতুন ভাইরাস।’

ওই সংবাদ সম্মেলনে বিশ্বে করোনা মোকাবেলায় সফল দেশে হিসেবে জার্মানি, দক্ষিণ কোরিয়া ও জাপানের নাম উল্লেখ করেন ডব্লিউএইচও প্রধান। তিনি বিশ্বের বিভিন্ন দেশের সরকারগুলোর প্রতি উপরোল্লিখিত দেশগুলোর নীতি অনুসরণ করারও আহ্বানও জানিয়েছেন।

তবে এবারই প্রথম নয়, এর আগেও একাধিকবার করোনা পরিস্থিতি নিয়ে ভয়াবহ সব হুঁশিয়ারি উচ্চারণ করেছেন টেড্রোস।

প্রসঙ্গত, করোনাভাইরাসে আক্রান্ত হয়ে বিশ্বের ৫ লাখের বেশি মানুষ প্রাণ হারিয়েছে। আক্রান্ত হয়েছে বিশ্বের ২১৩টি দেশ ও অঞ্চলের ১ কোটিরও বেশি মানুষ।


আরও পড়ুন