পিপিই দুর্নীতিতে স্লোভেনিয়ার অর্থমন্ত্রী গ্রেপ্তার, স্বরাষ্ট্রমন্ত্রীর পদত্যাগ

করোনা মহামারি মোকাবেলায় পিপিইসহ অন্যান্য সুরক্ষা সামগ্রী কেনাকাটায় দুর্নীতির ঘটনায় রাজনৈতিক সংকটে পড়েছে স্লোভেনিয়া। 

বিবিসি জানায়, দুর্নীতির অভিযোগে স্লোভেনিয়া অর্থমন্ত্রী স্দ্রাভকো পচিভালেস্ককে গ্রেপ্তার করেছে পুলিশ। একই অভিযোগে পদত্যাগ করেছেন স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী আলেস হোসে।

অর্থমন্ত্রী পচিভালেস্কের বিরুদ্ধে অভিযোগ, তিনি এমন একটি কোম্পানিকে কাজ দিয়েছেন যারা সঠিক সামগ্রী সরবরাহ করেনি। মন্ত্রী অবশ্য এই অভিযোগ অস্বীকার করেছেন।

পুলিশ মঙ্গলবার স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী আলেস হোসের ব্যাপারে তল্লাশি চালালে তিনি তার পদ থেকে সরে দাঁড়ান।

তিনি জানান, রাজনৈতিক উদ্দেশ্যপ্রণিত হয়ে তার বিরুদ্ধে এই অভিযোগ আনা হয়েছে। এটি প্রধানমন্ত্রী ইয়ানেজ জানসা নেতৃত্বাধীন মধ্য ডানপন্থী সরকারের বিরুদ্ধে ষড়যন্ত্র বলেও  হোসে দাবি করেন। 

এই ঘটনার প্রতিবাদে পুলিশ বাহিনীর প্রধানও পদত্যাগ করেছেন বলে আলেস হোসে জানান।

করোনা পরিস্থিতিতে গত মার্চ মাস এই সরকার ক্ষমতায় এসেছে। এরমধ্যে সুরক্ষা সামগ্রী কেনাকাটায় দুর্নীতির অভিযোগ উঠে সরকারের বিরুদ্ধে। এ নিয়ে দেশটির মানুষ রাস্তায় নেমে বিক্ষোভ করেছে।

কয়েক সপ্তাহ ধরে চলমান বিক্ষোভে রাজনৈতিক সংকটে পড়ে স্লোভেনিয়া সরকার। দুর্নীতির অভিযোগে পুরো সরকারকে পদত্যাগ করতে মঙ্গলবার আহ্বান জানায় বিরোধী দলগুলো।

প্রসঙ্গত, মধ্য ইউরোপের বলকান দেশ স্লোভেনিয়ায় সরকারি হিসাবে এখন পর্যন্ত ১৬০০ জন করোনায় আক্রান্ত হয়েছেন। এরমধ্যে মারা গেছেন ১১১ জন।

এর আগে গত মাসে করোনাভাইরাসের বিস্তার ঠেকতে সরঞ্জমাদি কেনায় দুর্নীতির অভিযোগে জিম্বাবুয়ের স্বাস্থ্যমন্ত্রীকেও গ্রেফতার করা হয়। পরে তিনি জামিনে মুক্তি পান।


আরও পড়ুন