কিশোরগঞ্জে দারুল আরকাম শিক্ষকরা ৬ মাস যাবত বেতন না পাওয়ায় স্মারকলিপি প্রদান

কিশোরগঞ্জে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা কর্তৃক প্রস্তাবিত ও প্রতিষ্ঠিত ইসলামিক ফাউন্ডেশনের দারুল আরকাম মাদরাসা প্রকল্প অনুমোদন ও শিক্ষকদের বেতন-ভাতার দাবিতে স্মারকলিপি প্রদান করেছেন শিক্ষকরা।

কিশোরগঞ্জ জেলা প্রশাসক মো. সারওয়ার মোর্শেদের কাছে প্রধানমন্ত্রী বরাবর দেয়া এই স্মারকলিপি তুলে দেন দারুল আরকাম শিক্ষক কল্যাণ সমিতির কেন্দ্রীয় সাধারণ সম্পাদক ও কিশোরগঞ্জ জেলা শাখার সভাপতি ডাঃ মাওলানা আনাস মাহমুদ। এ সময় উপস্থিত ছিলেন সহসভাপতি মাহফুজুর রহমান, সাধারণ সম্পাদক মাওলানা ফেরদৌস খাঁন, অর্থ সম্পাদক মোবারক হোসাইন, আশরাফ, মতিউর রহমান, হাসানুল কবির প্রমুখ।

দারুল আরকাম শিক্ষক কল্যাণ সমিতি, কিশোরগঞ্জ জেলা শাখার সভাপতি ডাঃ মাওলানা আনাস মাহমুদ বলেন, প্রধানমন্ত্রীর নির্দেশনার আলোকে ইসলামিক ফাউন্ডেশন বাংলাদেশ ২০১৭ সালে দেশের প্রতিটি উপজেলায় ২টি করে মোট এক হাজার ১০টি মাদরাসা প্রতিষ্ঠিত করা হয়। প্রতিযোগিতাপ‚র্ণ পরীক্ষার মাধ্যমে এসব মাদরাসার জন্য ২০২০ জন শিক্ষক নিয়োগ দেয়া হয়।

নিয়োগের পর থেকে ২০১৯ সালের ৩১ ডিসেম্বর পর্যন্ত বেতন-ভাতা পেলেও এই ৬ মাস আমরা কোন বেতন-ভাতা পাই না। বেতন-ভাতা না পেয়ে করোনা পরিস্থিতিতে আমরা মানবেতর জীবন যাপন করছি। তাই প্রধানমন্ত্রীর কাছে আবেদন জানানো হয়েছে।

কিশোরগঞ্জে ১৩ উপজেলায় ২৬টি মাদরাসায় ৫২ জন শিক্ষক রয়েছেন। এসব মাদরাসায় আরও ৮৮জন শিক্ষক নিয়োগের অপেক্ষায় রয়েছেন।


আরও পড়ুন