একদিনে আরও ২৮ মৃত্যু

করোনাভাইরাসে আক্রান্ত হয়ে চব্বিশ ঘণ্টায় দেশে ২৮ জনের মৃত্যু হয়েছে। এই সময়ে ১২ হাজার ৬১৪ টি নমুনা পরীক্ষা করে সংক্রমণ পাওয়া গেছে ২ হাজার ৭৭২ জনের শরীরে।

দেশে গত মার্চের শুরুর দিকে কভিড-১৯ এর সংক্রমণ শনাক্ত হওয়ার পর শুক্রবার পর্যন্ত মোট মৃতের সংখ্যা দাঁড়াল ৩ হাজার ১১১জনে।

আক্রান্তের সংখ্যা দাঁড়াল ২ লাখ ৩৭ হাজার ৬৬ জন। এর মধ্যে ২ হাজার ১৭৬ জনসহ মোট সুস্থ হয়েছেন ১ লাখ ৩৫ হাজার ৭৬ জন।

সবশেষ তথ্যানুযায়ী, দেশে করোনার নমুনা পরীক্ষার বিবেচনায় শনাক্তের হার ২১.৯৮ শতাংশ, শনাক্ত বিবেচনায় মৃত্যুর হার ১.৩১ শতাংশ এবং সুস্থতার হার ৫৬.৮৬ শতাংশ।

দেশের করোনাভাইরাস পরিস্থিতি নিয়ে স্বাস্থ্য অধিদপ্তরের নিয়মিত অনলাইন বুলেটিনে শুক্রবার দুপুরে এসব তথ্য তুলে ধরেন অতিরিক্ত মহাপরিচালক (প্রশাসন) অধ্যাপক ডা. নাসিমা সুলতানা।

চব্বিশ ঘণ্টায় যারা মৃত্যুবরণ করেছেন তাদের ২২ জন পুরুষ, ছয়জন নারী। তাদের সবার হাসপাতালে মৃত্যু হয়েছে। এর মধ্যে ঢাকা বিভাগের ১৩ জন, চট্টগ্রাম বিভাগের আটজন, রাজশাহী বিভাগের তিনজন, খুলনা বিভাগের দুজন এবং একজন করে মৃত্যু হয়েছে বরিশাল ও রংপুর বিভাগে।

বয়স বিশ্লেষণে দেখা যায়, চব্বিশ ঘণ্টায় সর্বোচ্চ ১০ জনের মৃত্যু হয়েছে ৬১-৭০ বছর বয়সীদের মধ্যে, সাতজনের বয়স ৫১-৬০, চারজনের বয়স ৭১-৮০, তিনজনের বয়স ৩১-৪০ বছর এবং দুজন করে মৃত্যু হয়েছে ২১-৩০ ও ৪১-৫০ বছর বয়সীদের মধ্যে।

গত একদিনে আইসোলেশনে নেওয়া হয়েছে ৭৫৯ জনকে, ছাড় পেয়েছেন ১ হাজার ১৭ জন; বর্তমানে আইসোলেশনে আছেন ১৮ হাজার ৩১০ জন।

এই সময়ে কোয়ারেন্টাইনে নেওয়া হয়েছে ২ হাজার ৮৯ জনকে, ছাড় পেয়েছেন ২ হাজার ৬৯০ জন; বর্তমানে কোয়ারেন্টাইনে আছেন ৫৬ হাজার ৮২৪ জন।


আরও পড়ুন