টানা ১৯ ঘণ্টা পর চালু হলো শিমুলিয়া-কাঁঠালবাড়ী নৌরুট

পদ্মার ভাঙন আতঙ্কে শিমুলিয়া-কাঁঠালবাড়ী নৌরুটে টানা প্রায় ১৯ ঘণ্টা বন্ধ থাকার পর, পরীক্ষামূলকভাবে চালু হলো ফেরি।

এদিকে, পদ্মাসেতুর কন্সট্রাকশন ইয়ার্ডের একাংশ নদীতে বিলীন হয়ে গেছে। সেতুর চার শতাধিক রোডওয়ে স্ল্যাব ও রেলওয়ে গার্ডারসহ নানা উপকরণ ও যন্ত্রপাতি পদ্মার পেটে।

উত্তাল পদ্মা তাণ্ডব চালাচ্ছে প্রতিদিনই। ভাঙণ আতঙ্কে শুক্রবার (৩১ জুলাই) সন্ধ্যা থেকে টানা প্রায় ১৯ ঘণ্টা বন্ধ থাকার পর শিমুলিয়া-কাঁঠালবাড়ি নৌরুটে বন্ধ থাকে ফেরি চলাচল। ঈদের দিন বিকেলে পরীক্ষামূলকভাবে চালু হয় ফেরি। দীর্ঘক্ষণ পারপার বন্ধ থাকায় ঘাটের উভয়পাড়ে আটকা পড়ে কয়েকশ’ যানবাহন। দুর্ভোগে পড়েন যাত্রী ও পরিবহন শ্রমিকরা।

নৌ-পরিবহন প্রতিমন্ত্রী খালিদ মাহমুদ বলেন, এইটাতো একটা একটা টেকনিক্যাল জব। এখন একজন টেকনিক্যাল ব্যক্তির সাথে আলোচনা করে পরবর্তীতে কী করা যায় সে ব্যাপারে পদক্ষেপ নেওয়া হবে। আপাতত ফেরিটা পরীক্ষামুলক চালু করা হবে। 

ভয়াবহ ভাঙণের মুখে সেতুর কন্সট্রাকশন ইয়ার্ড। ইতোমধ্যেই বিলিন হয়েছে একাংশ।

পদ্মার পেটে কন্সট্রাকশন ইয়ার্ডে রাখা সেতুর স্প্যানের উপর বসানোর জন্য রোডওয়ে স্ল্যাব, রেলওয়ে গার্ডার, বড় আকারের ক্রেন, জেনারেটর ও লোহার পাইপসহ বেশ কিছু যন্ত্রপাতি।


আরও পড়ুন