রাজধানীতে কোরবানির বর্জ্য অপসারণে সাড়ে ১৭ হাজার কর্মী

পবিত্র ঈদ-উল-আযাহার কোরবানির বর্জ্য অপসারণে সর্বোচ্চ গুরুত্ব দিয়ে মাঠে নেমেছে ঢাকার দুই সিটি কর্পোরেশন। ২৪ ঘণ্টার মধ্যে বর্জ্য অপসারণের সাড়ে ১৭ হাজার কর্মী মাঠে থেকে কাজ করবেন। বর্জ্য অপসারণে সাড়ে ৭০০ যানবাহন ব্যবহার হবে। ঢাকা উত্তর ও দক্ষিণ সিটি কর্পোরেশনের বর্জ্য ব্যবস্থাপনা বিভাগ সূত্রে এ তথ্য জানা গেছে।

কোরবানির বর্জ্য ব্যবস্থাপনা বিষয়ে ঢাকা দক্ষিণ সিটি কর্পোরেশন মেয়র ব্যারিস্টার শেখ ফজলে নূর তাপস বলেন, ‘ঈদুল আজহা উপলক্ষে বর্জ্য অপসারণে বিশেষ কর্মসূচি গ্রহণ করেছি। ২৪ ঘণ্টায় বর্জ্য অপসারিত হবে। কোরবানির পর যে বর্জ্য সৃষ্টি হবে, আমরা সে বর্জ্য দুপুর ২টা থেকে সম্পূর্ণরূপে অপসারণের কার্যক্রম হাতে নিয়েছি। এবারও আমরা ঢাকাকে পরিষ্কার-পরিচ্ছন্ন করতে পারব। পরিচ্ছন্নতাকর্মী থেকে শুরু করে কর্মকর্তা-কর্মচারী কেউ ছুটিতে নেই’।

তিনি আরও বলেন, ‘অত্যন্ত সুন্দরভাবে হাট পরিচালিত হয়েছে। হাট পরিচালনার পর আমরা রাত ১২টা থেকে কোরবানির পশুর হাটকেন্দ্রিক বর্জ্য অপসারণ শুরু করেছি। ইতোমধ্যে পশুর হাটের প্রায় শতভাগ বর্জ্য অপসারণ করতে আমরা সক্ষম হয়েছি।’

কোরবানির বর্জ্য ব্যবস্থাপনা বিষয়ে ঢাকা উত্তর সিটি কর্পোরেশন (ডিএনসিসি) মেয়র আতিকুল ইসলাম বলেন, ‘দ্রুত কোরবানির বর্জ্য অপসারণের জন্য নগরীতে ২৫৬টি স্থান চিহ্নিত করে দেওয়া হয়েছে। ঈদের দিন প্রায় ১০ হাজার টন বর্জ্য উৎপন্ন হবে। প্রতিবছরের মতো এবারও ২৪ ঘণ্টার মধ্যে বর্জ্য অপসারণ করা হবে।’


আরও পড়ুন