বাউফলে আওয়ামী লীগের দুই পক্ষের সংঘর্ষে নিহত ২

পটুয়াখালীর বাউফল উপজেলায় কেশবপুর ইউনিয়নের আওয়ামী লীগের দুই পক্ষের মধ্যে সংঘর্ষে স্থানীয় দুজন কর্মী মারা গেছেন। পূর্ববিরোধের জের ধরে সংঘর্ষের ঘটনাটি ঘটে।

রোববার সন্ধ্যা ৭টার দিকে এ ঘটনায় নিহত স্থানীয় ওই দুই আওয়ামী লীগ কর্মীর নাম রাকিব উদ্দিন নোমান (৩৩) ও ইশাদ তালুকদার (২৪)। তারা দুজন সম্পর্কে চাচাতো ভাই। সন্দেহভাজন হিসেবে চারজনকে আটক করেছে পুলিশ।

দুজনের নিহতের ঘটনা ছড়িয়ে পড়লে আবারও উত্তেজনা দেখা দিয়েছিল, তবে পুলিশ পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে নিয়েছে। পটুয়াখালীর অতিরিক্ত পুলিশ সুপার (বাউফল সার্কেল) মো. ফারুক হোসেন এসব তথ্য জানিয়েছেন।

স্থানীয় লোকজনের কাছ থেকে জানা গেছে, দীর্ঘদিন ধরে কেশবপুর ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের সভাপতি ও সাধারণ সম্পাদক পক্ষে বিরোধ চলছিল। গত শুক্রবার দুই পক্ষের মধ্যে একবার সংঘর্ষ ঘটে। জহির নামে সাধারণ সম্পাদকের পক্ষের এক কর্মী আহত হন। তারই জের ধরে আজ সন্ধ্যা সাতটার দিকে ফের সংঘর্ষের ঘটনা ঘটে। রাকিব ও ইশাদ এ রক্তক্ষয়ী সংঘর্ষে গুরুতর আহত হন। তাদের স্থানীয় লোকজন উদ্ধার করে বাউফল উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি করে। রাত ৯টার দিকে চিকিৎসাধীন অবস্থায় তার মারা যান। এখবর ছড়িয়ে পড়লে ফের সংঘর্ষের চেষ্টা করে দুই পক্ষ। তবে পুলিশ পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণ করে ফেলে।

এদিকে সংঘর্ষের ঘটনা কোনো দলীয় কোন্দল নয় বলে দাবি করেছেন কেশবপুর ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের সভাপতি সালাহউদ্দিন আহমেদ। এমনকি সাধারণ সম্পাদক মহিউদ্দিন লাভলুও এ ঘটনাটিকে দলীয় কোন্দল নয় বলে জানান। স্থানীয়ভাবে নিজেদের মধ্যে বিরোধের জের ধরে এ ঘটনা ঘটেছে বলে তারা দাবি করেন।

ঘটনাস্থলে অতিরিক্ত পুলিশ মোতায়েন করা হয়েছে। এ ঘটনায় সন্দেহভাজন হিসেবে চারজনকে আটক করে জিজ্ঞাসাবাদ করা হচ্ছে বলে নিশ্চিত করেছেন অতিরিক্ত পুলিশ সুপার (বাউফল সার্কেল) মো. ফারুক হোসেন।


আরও পড়ুন