বাজিতপুর - October 7, 2020

বাজিতপুরে চাঞ্চল্যকর মহন হত্যার ২ আসামি আটক

কিশোরগঞ্জে বাজিতপুরে চাঞ্চল্যকর মহাসিন ওরফে মহন (৪০) হত্যা মামলার প্রধান আসামিসহ দুই আসামিকে আটক করেছে র‌্যাব। সোমবার (৫ অক্টোবর) দিবাগত রাত আড়াইটার দিকে বাজিতপুর উপজেলার নান্দিনা আলিয়াবাদ এলাকা থেকে তাদের আটক করা হয়।

আটক হওয়া দুই আসামি হচ্ছে, মামলার এজাহার নামীয় ১নং আসামি শহিদ খান (৪৬) ও ২নং আসামি আমিন (৩৯)। তাদের মধ্যে শহিদ খান বাজিতপুর উপজেলার নান্দিনা আলিয়াবাদ এলাকার মৃত মহি উদ্দিন খানের ছেলে এবং আমিন একই এলাকার রেখু মিয়ার ছেলে।

র‌্যাব জানায়, গত ২৬ ফেব্রুয়ারি রাত ৮টার দিকে বাজিতপুর উপজেলার মাদারহাট এলাকায় পূর্ব ভাগলপুর এলাকার রাজনের সাথে শহিদ খান এর কথা কাটাকাটির এক পর্যায়ে হাতাহাতি হয়। এর জের ধরে রাত ৮টা ৪০ মিনিটের দিকে মাদারহাট এলাকায় (ফায়ার সার্ভিসের পূর্ব পার্শ্বে) হারুন মিয়ার বাড়ীর সামনে পাকা রাস্তার উপর রাজনকে মারতে আসলে শহিদ খান ও তার লোকদের মহাসিন ওরফে মহন বাধা নিষেধ করে। এতে ক্ষিপ্ত হয়ে তারা মহাসিন ওরফে মহনকে তারা এলোপাতাড়ি আঘাত করে গুরুতর জখম করে। আশঙ্কাজনক অবস্থায় মহাসিন ওরফে মহনকে হাসপাতালে ভর্তি করার পর গত ২৮ ফেব্রুয়ারি এ বিষয়ে বাজিতপুর থানায় রাজন বাদী হয়ে মামলা দায়ের করেন।

পরবর্তিতে গত ৪ মার্চ বিকাল সাড়ে ৩টার দিকে ঢাকার ধানমন্ডি রিলায়েন্স জেনালের এন্ড রেনাল হাসপাতালে চিকিৎসাধীন অবস্থায় মহাসিন ওরফে মহন মৃত্যুবরণ করেন। ভিকটিমের মৃত্যুর পর মামলায় ৩০২ পেনাল কোড সংযোজিত হলে আসামিদের উপর র‌্যাবের নিরবচ্ছিন্ন গোয়েন্দা নজরদারী চালানো হয়। এরই প্রেক্ষিতে সোমবার (৫ অক্টোবর) দিবাগত রাত আড়াইটার দিকে বাজিতপুর উপজেলার নান্দিনা আলিয়াবাদ এলাকায় র‌্যাব অভিযান পরিচালনা করে। অভিযানে মামলার এজাহার নামীয় ১নং আসামি শহিদ খান ও ২নং আসামি আমিনকে আটক করা হয়।

র‌্যাব-১৪ ভৈরব ক্যাম্পের স্কোয়াড কমান্ডার মোহাম্মদ বেলায়েত হোসাইন মুক্তিযোদ্ধার কণ্ঠকে বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন।


আরও পড়ুন