বিক্ষোভের মুখে পেরুর প্রেসিডেন্টের পদত্যাগ

দায়িত্ব গ্রহণের এক সপ্তাহেরও কম সময়ের মধ্যে পদত্যাগ করেছেন পেরুর অন্তর্বর্তীকালীন প্রেসিডেন্ট ম্যানুয়েল মেরিনো। খবর আল জাজিরা।

রোববার (১৫ নভেম্বর) স্থানীয় সময় রাতে রাজধানী লিমা থেকে সম্প্রচারিত এক টেলিভিশন ভাষণে ম্যানুয়েল মেরিনো পদত্যাগের ঘোষণা দেন।

 

এর আগে, তার পদত্যাগ চেয়ে রাতভর বিক্ষোভে পুলিশি হামলায় দুই জনের মৃত্যু হয় এবং আহত হন কয়েক ডজন।

এদিকে, ওই বিক্ষোভকারীদের মৃত্যুর জেরে প্রেসিডেন্ট ম্যানুয়েল মেরিনোকে পদত্যাগ করতে হয়েছে বলে জানিয়েছে স্থানীয় গণমাধ্যমগুলো।

অন্যদিকে, রাষ্ট্রীয় টেলিভিশন চ্যানেলে সম্প্রচারিত ভাষণে অন্তর্বর্তীকালীন প্রেসিডেন্ট বলেছেন, তিনি সারাদেশকে জানাতে চান যে, তিনি পদত্যাগ করছেন।

পাশাপাশি, সর্বজনের শান্তি এবং ঐক্যের ডাক দিয়েছেন মেরিনো – প্রতিবেদনে জানিয়েছে আল জাজিরা।

প্রসঙ্গত, আগের সপ্তাহের মঙ্গলবার ঘুষ গ্রহণের অভিযোগে বিরোধীদল নিয়ন্ত্রিত কংগ্রেসে অভিশংসনের মুখে পড়েন সাবেক প্রেসিডেন্ট মার্টিন ভিজসারা। তার স্থানে অন্তর্বর্তীকালীন প্রেসিডেন্ট হিসেবে দায়িত্ব নেন ম্যানুয়েল মেরিনো।

তারপর থেকেই, ম্যানুয়েল মেরিনোর পদত্যাগের দাবিতে লিমার রাস্তায় বিক্ষোভকারীরা জড়ো হতে শুরু করেন। শনিবার (১৪ নভেম্বর) পর্যন্ত সেই বিক্ষোভ শান্তিপূর্ণই ছিল। কিন্তু, অন্যান্য রাজনৈতিক নেতাদের পক্ষ থেকে ম্যানুয়েল মেরিনোর পদত্যাগ দাবি করা হলে বিক্ষোভে সহিংসতা ছড়িয়ে পড়ে।

সেই সহিংসতার জেরেই পেরুর অন্তর্বর্তীকালীন প্রেসিডেন্ট ম্যানুয়েল মেরিনোকে পদত্যাগের সিদ্ধান্ত নিতে হলো।


আরও পড়ুন