বরগুনায় কিশোরীকে ধর্ষণের দায়ে একজনের যাবজ্জীবন

বিয়ের প্রলোভন দেখিয়ে ১৪ বছরের কিশোরীকে ধর্ষণের ঘটনায় বরগুনায় আব্দুল মালেক নামে একজনকে যাবজ্জীবন কারাদণ্ড দিয়েছে নারী ও শিশু নির্যাতন দমন ট্রাইবুনাল।

বুধবার বিচারক মো: হাফিজুর রহমান এই রায় দেন। এছাড়াও আসামিকে দুই লাখ টাকা জরিমানা করা হয়েছে। জরিমানার অর্থ আগামী ৩০ দিনের মধ্যে ভিকটিম ও তার শিশু সন্তানকে প্রদান করার নির্দেশ দেয়া হয়েছে।

দণ্ডপ্রাপ্ত মালেক বরগুনা সদর উপজেলার ৮ নং ইউনিয়নের বাসিন্দা।

২০০৯ সালের ২১ অক্টোবর মামলা করে ওই কিশোরী।

মামলার এজাহারে বাদি অভিযোগ করেন, আসামি বিয়ের প্রলোভন দেখিয়ে তার সাথে শারীরিক সম্পর্ক স্থাপন করে। একপর্যায়ে তিনি চার মাসের অন্তঃসত্ত্বা হয়ে পড়ে। কিন্তু মালেক পরে তাকে বিয়ে করতে অপরাগতা প্রকাশ করেন।

ট্রাইবুনালে রাষ্ট্রপক্ষ আটজনের সাক্ষ্যগ্রহণ করে। আসামিপক্ষে একজন সাফাই সাক্ষী দেয়।

রাষ্ট্রপক্ষে মামলা পরিচালনা করেন এপিপি আশরাফুল আলম শিল্পী। আসামিপক্ষে ছিলেন কমল কান্তি দাস ও আ: রহমান নান্টু।


আরও পড়ুন