দেশের খবর - January 15, 2021

বরগুনায় ডিবি পুলিশ পরিচয়ে ডাকাতি

বরগুনায় পুলিশের দারোগা ও  ডিবি পুলিশ পরিচয়ে ডাকাতি সংঘঠিত হওয়ায় খবর পাওয়া গেছে।

শুক্রবার ( ১৫ জানুয়ারী) দিবাগত রাত অনুমানিক পৌনে ৩টার দিকে সদর উপজেলার বুড়িরচর ইউনিয়নের পূর্ব-চরকগাছিয়া গ্রামের শহিদুল ইসলাম হাওলাদারের বাড়ি এ ডাকাতির ঘটনা ঘটেছে।

এ সময়  ডাকাতের মারধরে শহিদুল ইসলাম হাওলাদারের পুত্র মেহেদী হাসান -(১৮)  ও মিঠু (১৬) আহত হয়। গুরুত্বর আহত মেহেদী হাসান (১৮) কে তাৎক্ষনিক ভাবে ঐ দিন বরগুনা জেনারেল হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে।

প্রত্যক্ষদর্শী মিঠু  জানান, গতরাত পৌনে ৩টার দিকে হঠাৎ আমার ঘুম ভেঙ্গে গেলে ঘরের জানালা দিয়ে বাড়ির উঠানে দু-জন  লোক দেখতে পাই ।

চোর বুঝে দরজা খুলে দাওয়া করতে গেলে উল্টো আরো ১০/১২ আমাকে ও আমার বড় ভাই মেহেদীকে ধরে বেঁধে ফেলে ।

আমাদের দা দিয়ে পিটিয়ে আহত করে। ঘরে থাকা স্টিলের আলমিরা থেকে নগদ ৫৫ হাজার টাকা ও স্বর্ণোলংকার নিয়ে প্রতিবেশী নজরুল ইসলাম এর ঘরের দরজা ভেঙ্গে ঘরে উঠে ট্রাংক থেকে নগদ টাকা ও স্বর্ণালংকার নিয়ে ডাকাতেরা চলে যায়।

মিঠু আরও জানায় আমার বাবা- মা বাড়িতে ছিল না । আমাদের বাড়িতে লোকজনের আওয়াজ পেয়ে পাড়া- প্রতিবেশীরা ডেকে  প্রশ্নে  করে ওখানে কারা । তখন ডাকাতরা বলেন ,আমরা দারোগা এখানে ট্যাবলেট পেয়েছি।

প্রত্যাক্ষদর্শী প্রতিবেশী  নজরুল ইসলাম জানান, আমি ঘরে বসে বাড়িতে লোক জনের আলাপ পাই । এক পর্যায় তাদের কাছে জানতে চাই আপনারা কারা তারা বলেন , আমরা ডিবি পুলিশ  এখানে গাজাঁ পেয়েছি।

পরে  আমার ঘরের দরজা ভেঙ্গে ঘরে উঠে ট্রাংক থেকে  স্বর্ণালংকার ও  নগদ টাকা ডাকাতেরা  নিয়ে যায়।

ভুক্তভোগীদের স্বজন সোলায়মান জানান,  এ বিষয়ে থানায় মামলা হবে । মামলার প্রক্রিয়া চলছে।

এ ব্যাপারে বরগুনা সদর থানার অফিসার ইনচার্জ কে এম তারিকুল ইসলাম বলেন, বিষয়টি আমি জানিনা । মামলা হলে  ব্যবস্থা নেব।


আরও পড়ুন