দেশের খবর - January 30, 2021

ফুলপুরে নিখোঁজ যুবকের লাশ উদ্ধার

ময়মনসিংহ জেলার ফুলপুর উপজেলায় নিখোঁজ ১ দিন পর শিশু শ্রমিক সিয়াম হোসেন (১৩) নামের এক যুবকের লাশ উদ্ধার করা হয়েছে। শনিবার সকালে তারাকান্দা উপজেলার ঢাকা-হালুয়াঘাট মহাসড়কের কাকনী হাওর এলাকার ব্রীজের নীচ থেকে মাটিতে পুঁতে রাখা লাশ উদ্ধার করে ময়মনসিংহ মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের মর্গে পাঠানোর ব্যবস্থা করা হয় ।

নিহত যুবক ফুলপুর উপজেলার ভাইটকান্দি ইউনিয়নের মারাদেওড়া গ্রামের মকবুল হোসেনের ছেলে। স্থানীয় দাখিল মাদরাসার ৬ষ্ঠ শ্রেণীর ছাত্র ছিলেন সিয়াম । বাবার সাথে সংসারের হাল ধরতে অটোভ্যান চালিয়ে সংসার চালাতেন নিহত এ যুবক ।করোনার প্রভাবে মাদরাসা বন্ধ থাকায় লেখাড়ার পাশাপাশি অটোভ্যানের টাকায় সংসারে কাজে লাগাতেন এই শিশু শ্রমিক। গতকাল শুক্রবার দুপুরে ভ্যানগাড়ী নিয়ে বাড়ী থেকে বের হওয়ার পর রাতে কষ্টের টাকা দিয়ে বাজার করে না ফিরলেও গতকাল লাশ হয়ে বাড়ীতে যাওয়া হয় নিহত সিয়ামের।

তারাকান্দা থানা ও নিহতের পরিবার সুত্রে জানা যায়, গতকাল শুক্রবার দুপুরে নিজ বাড়ী থেকে প্রতিদিনের মত অটোভ্যান গাড়ী নিয়ে বাড়ী থেকে বের হন। সারাদিন ভ্যান চালানোর পর উপার্জিত অর্থদিয়ে সংসারের হাল ধরতেন এ শিশু। অসুস্থ্য বাবা মা কষ্ট সহ্য করতে না পারায় লেখাপড়ার পাশাপাশি এ কর্ম করতেন সিয়াম । রাতে বাজার করে বাড়ীতে না ফেরায় পরিবারের সদস্যরা খোঁজাখুঁজির পর তাকে কোথাও না পেয়ে আত্মীয় স্বজনদেও বাড়ীতে খুঁজতে থাকে। অবশেষে গতকাল তারাকান্দার কাকনী হাওড় এলাকায় ব্রীজের নীচে সকালে মাটিতে বস্তা দিয়ে পুঁতে রাখা লাশ শনাক্ত করা হয় এ শিশু শ্রমিকের।

নিহত সিয়ামের চাচা আবুল হাসান জানান,দুই বোন ও তিনভাইয়ের মাঝে সিয়াম বড়। ব্রাক থেকে প্রাথমিক শিক্ষা শেষ করে স্থানীয় মাদরাসায় ভর্তি হয় সে। দরিদ্র পরিবারের সন্তান হওয়া এবং বাবা মা অসুস্থ্য থাকায় সংসারের হাল ধরেন অটোভ্যানের আয়ের টাকায় । মেধাবি ছাত্র হিসাবে তার পরিচিতি রয়েছে। তার মৃত্যূর খবরে বাকরুদ্ধ হয়ে পড়েন বাবা-মা । বারবার জ্ঞান হারাচ্ছেন তারা। কোন সান্তনায় কাজ হচ্ছে না।

এদিকে ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেছেন তারাকান্দা থানার ওসি ও ফুলপুর থানার ওসি।

এ বিষয়ে জানতে চাইলে তারাকান্দা থানার ওসি আবুল খায়ের জানান, নিহতের লাশ উদ্ধার করে ময়নাতদন্তের জন্য ময়মনসিংহ মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের মর্গে পাঠানো হয়েছে। এ ঘটনায় মামলার প্রস্তুতি চলছে।


আরও পড়ুন