বাংলাদেশে আসবে না আফগানিস্তান

বিশ্বকাপ ও এশিয়ান কাপের যৌথ বাছাইয়ের প্রিলিমিনারি রাউন্ডে বাংলাদেশের বাকি আরো তিন ম্যাচ। এই তিনটি ম্যাচই বাংলাদেশের ‘হোম ম্যাচ’। তবে এর কোনোটিই ঘরের মাঠে খেলা হচ্ছে না জামাল ভূঁইয়াদের।

পূর্ব নির্ধারিত সূচি অনুযায়ী ২৫ মার্চ আফগানিস্তানের বিপক্ষে ম্যাচ বাংলাদেশের। ভারত ও ওমানের বিপক্ষে বাকি ম্যাচ দুটি জুনে। ৭ জুন ভারত ও ১৫ জুন ওমানের মুখোমুখি হওয়ার কথা জামাল ভূঁইয়াদের।

করোনা পরিস্থিতিতে হোম অ্যান্ড অ্যাওয়ে ভিত্তিতে না খেলে বাকি থাকা ম্যাচগুলো কোনো নিরপেক্ষ ভেন্যুতে একই সময়ে খেলতে আগ্রহী গ্রুপের অন্য চার দল। অন্তত একটি ম্যাচে ঘরের মাঠে খেলার সুবিধা পেতে চায় বাংলাদেশ। সেই হিসেবেই ২৫ মার্চ আফগানিস্তানের বিপক্ষে ম্যাচটি সিলেটে খেলার ইচ্ছে জানিয়েছে বাফুফে।

কিন্তু আফগানিস্তান বাংলাদেশে ম্যাচ খেলতে আসতে রাজি নয়। ম্যাচটি জুনে নিরপেক্ষ ভেন্যুতে খেলতে এএফসি দ্বারস্থ হয়েছিল দেশটি। এএফসির সঙ্গে বাফুফের কিছুদিন ধরেই এ নিয়ে চলছিল চিঠি চালাচালি।

সোমবার বাফুফে সাধারণ সম্পাদক আবু নাঈম সোহাগ যা বললেন, ‘এএফসি আমাদেরকে যে চিঠি দিয়েছে, সেখানে এটাও বলা হয়েছে আফগানিস্তান মার্চ উইন্ডোতে ম্যাচটি খেলতে চায় না। জুন উইন্ডোতে খেলাটা আয়োজন করার যে অপশন রয়েছে, আফগানিস্তান চাইছে সেভাবে। পরোক্ষভাবে আফগানিস্তানের ইচ্ছাটা জুনে খেলার, সেটা তারা এএফসিকে জানিয়েছে। আমরা আফগানিস্তানের সঙ্গে আলোচনা করছি। তাদের পরের ফিডব্যাক পাওয়ার পর বলতে পারব মার্চে খেলাটি অনুষ্ঠিত হচ্ছে কিনা।’

কেন আফগানিস্তান বাংলাদেশে আসতে চায় না এ বিষয়েও বলেছেন আবু নাঈম, ‘আফগানিস্তানের খেলোয়াড়রা নির্দিষ্ট কোনো দেশ থেকে আসছে না। বিভিন্ন দেশ থেকে আসবে। তারা আসলে এই বিষয়গুলোতে হয়তো তাদের মতো করে অনেক সমস্যার মুখোমুখি হচ্ছে।’

এরপরও অবশ্য আশা ছাড়তে চায় না বাফুফে, ‘আমরা আমাদের সেরা চেষ্টাটা করে যাচ্ছি, আমাদের ম্যাচটা আমাদের দেশের মাটিতে আয়োজন করার জন্য। এএফসি যে সিদ্ধান্ত দেবে, সে অনুযায়ীই আমরা অংশ গ্রহণ করব।’


আরও পড়ুন