করিমগঞ্জ - July 3, 2021

করিমগঞ্জে দুই ডিজিটাল প্রতারক গ্রেপ্তার

কিশোরগঞ্জের করিমগঞ্জে অনলাইনে প্রতারণার মাধ্যমে অর্থ হাতিয়ে নেওয়ার অভিযোগে ডিজিটাল প্রতারক চক্রের হোতা আজমির (২৬) ও সদস্য সাগর (২২) কে গ্রেপ্তার করেছে পুলিশ। শনিবার (৩ জুলাই) উপজেলার জাফরাবাদ এলাকায় অভিযান চালিয়ে তাদের গ্রেপ্তার করা হয়।

গ্রেপ্তার হওয়া দুই ডিজিটাল প্রতারকের মধ্যে আজমির করিমগঞ্জ উপজেলার কাদিরজঙ্গল ইউনিয়নের ইসলামপাড়া গ্রামের মো. খসরুর ছেলে এবং সাগর একই গ্রামের শাহজাহান মিয়ার ছেলে।

করিমগঞ্জ থানার ওসি মমিনুল ইসলাম বিষয়টি নিশ্চিত করে জানান, দীর্ঘদিন ধরে একটি অসাধু ডিজিটাল প্রতারক চক্র কখনো মোবাইলে মিনিট এবং ইন্টারনেট ডাটা প্যাক দেয়ার নামে নিরীহ লোকজনদের কাছ থেকে অর্থ হাতিয়ে নিচ্ছে।

আবার কখনো কবিরাজি চিকিৎসা দেয়ার নামে লোকজনের কাছ থেকে অর্থ হাতিয়ে নিচ্ছে।

এছাড়া কখনো লটারির ড্র জেতার নাম করে সেই ড্রয়ের টাকা উত্তোলনের জন্য সরল নিরীহ লোকজনকে বোকা বানিয়ে অর্থ হাতিয়ে নেয়।

এমন একটি প্রতারক চক্রের সন্ধান পাওয়ায় পুলিশের এন্টি টেররিজম ইউনিট এর সহায়তায় অভিযান চালিয়ে দুই ডিজিটাল প্রতারক আজমির ও সাগরকে গ্রেপ্তার করা হয়।

ওসি মমিনুল ইসলাম জানান, আজমির প্রতারক চক্রটির অন্যতম হোতা। সে অন্তি চৌধুরী, মন্দুল কবিরাজ, আলী আজগর কবিরাজ, আলী আকবর, কবিরাজ ফারুক ইত্যাদি বিভিন্ন নাম ব্যবহার করে অনলাইনে প্রতারণার মাধ্যমে সাধারণ মানুষের কাছ থেকে অর্থ হাতিয়ে নিতো।

কখনও মোবাইলে মিনিট ও ইন্টারনেট ডাটা, কখনও কবিরাজ আবার কখনও লটারি জেতার অর্থ দেয়ার নাম করে সে এসব প্রতারণা করতো। এ কাজে সাগর ছিল তার সহযোগী।

তারা ফেসবুকে বিভিন্ন আইডি ও পেইজ খুলে এবং অন্যান্য সোশ্যাল মিডিয়ায় বিভিন্ন লোভনীয় অফার দিয়ে সহজ সরল ভুক্তভোগীদেরকে আকৃষ্ট করে প্রতারণার মাধ্যমে বিকাশ ও নগদের মাধ্যমে বিপুল পরিমাণ অর্থ হাতিয়ে নেয়।

বিভিন্ন সময় বিভিন্ন স্থান থেকে অভিযোগ পাওয়ার প্রেক্ষিতে মনিটরিং চালিয়ে তাদেরকে সনাক্ত করে গ্রেপ্তার করা হয়।

দেশের বিভিন্ন প্রান্তে এ চক্রটির আরো সদস্য রয়েছে বলে গ্রেপ্তারকৃতরা প্রাথমিকভাবে জানিয়েছে।

তাদেরকেও দ্রুত সনাক্ত করে আইনের আওতায় আনা হবে উল্লেখ করে ওসি মমিনুল ইসলাম বলেন, এ ব্যাপারে ডিজিটাল নিরাপত্তা আইনে থানায় একটি মামলা দায়ের করা হয়েছে।


আরও পড়ুন