দেশের খবর - July 9, 2021

ডিমলায় প্রতিপক্ষের হামলায় নিহত ১

নীলফামারীর ডিমলায় জমি নিয়ে বিরোধে প্রতিপক্ষের হামলায় হরিপদ রায়(৫৫) নামে এক ব্যক্তির মৃত্যু হয়েছে।এ ঘটনায় পুলিশের হাতে গ্রেফতার ২জনকে শুক্রবার (৯ এপ্রিল) আদালতে সোপর্দ করা সহ লাশ ময়নাতদন্তের জন্য নীলফামারী প্রেরণ করেছেন ডিমলা থানা পুলিশ।

এর আগে বৃহস্পতিবার(৮ এপ্রিল)বিকেল ৫টার দিকে বাবুরহাট বোছাগাড়ির পাড় শ্মশান পাড়া এলাকায় এই হত্যার ঘটনাটি ঘটে।

নিহত হরিপদ একই এলাকার আন্ধারু বর্মণের ছেলে।ঘটনার দিনগত সন্ধ্যায় খবর পেয়ে ময়না তদন্তের জন্য হাসপাতাল থেকে লাশ উদ্ধার করে থানায় নিয়ে ও ঘটনাস্থল পরিদর্শন করে মুল অভিযুক্ত মোজাই মাহমুদের মেয়ে মারুফা বেগম(২৩)কে গ্রেফতার করেন থানা পুলিশ।

মারুফাকে ঘটনার দিনগত রাত ২টায় থানায় দেখতে গিয়ে ডিমলা ভাটিয়া পাড়া গ্রামের মৃত, মোহাম্মদ আলীর ছেলে হাবিবুর রহমানও(৪০) পুলিশের হাতে গ্রেফতার হন।তিনি জানতেন না মামলায় তার নামও রয়েছে।

এলাকাবাসী সুত্রে জানা যায়, দীর্ঘদিন ধরে জমি নিয়ে বিরোধ চলে আসছিলো হরিপদ রায়ের সাথে প্রতিবেশী মৃত,সইজা কামারের ছেলে মোজাই মাহমুদের(৫৫)।ঘটনার সময় মোজাই মাহমুদের বাড়ির পিছনে পৈতৃক সুত্রে পাওয়া হরিপদ নিজের জমির ক্ষেতের আইল পরিস্কার করতে থাকেন।এ সময় মোজাই মাহমুদসহ তার,স্ত্রী, সন্তানের সাথে হরিপদ’র তর্ক-বিতর্কের সৃষ্টি হয়।এক পর্যায়ে হরিপদ কিছু বুঝে ওঠার আগেই মোজাই মাহমুুদ বাঁশের লাঠি দিয়ে হরিপদ’র ঘারে আঘাত করলে তিনি ক্ষেতেই লুটিয়ে পড়েন।পরে হরিপদকে উদ্ধার করে ডিমলা হাসপাতালে নিলে সেখানকার কর্তব্যরত চিকিৎসক তাকে মৃত ঘোষণা করেন।

নিহতের স্ত্রী লক্ষীবালা জানান,আমার স্বামীকে মারপিটের পর মোজাই তার পরিবারের লোকেরা বেশকিছু ভারাটিয়া সন্ত্রাসী নিয়ে আবারও আমার বাড়িতে হামলা চালিয়ে ভাঙচুর করে প্রাণনাশের হুমকি প্রদর্শন করেন।আমরা এর উপযুক্ত বিচার চাই।

এ দিকে রাতেই নিহতের স্ত্রী লক্ষীবালা বাদী হয়ে ৮জন নামিয় ও অজ্ঞাত ৫/৬ জনকে আসামি করে ডিমলা থানায় মামলা নং-৯,তারিখ-৯/৭/২০২১ইং দায়ের করেছেন।

এ ব্যাপারে জানতে চাইলে ডিমলা থানার ওসি সিরাজুল ইসলাম বলেন, জমিজমা সংক্রান্ত বিরোধে প্রতিপক্ষের হামলায় হরিপদ নামের একজন নিহত হয়েছেন।এ ঘটনায় নিহতের স্ত্রী একটি মামলা দায়ের করেছেন। আমরা দুজনকে গ্রেফতার করেছি।বাকি আসামিদের গ্রেফতারের চেষ্টা অব্যাহত রয়েছে।


আরও পড়ুন