মেসি-নেইমার-এমবাপ্পে জুটিও পারল না পিএসজিকে জেতাতে

ফুটবল বিশ্বের সবচেয়ে ভয়ানক আক্রমণভাগ এখন প্যারিস সেন্ট জার্মেইয়ের (পিএসজি)। কিলিয়ান এমবাপ্পেকে মাঝখানে রেখে দুই পাশে লিওনেল মেসি ও নেইমার।

প্যারিসের এই ত্রিরত্নকে সামাল দিতে প্রতিপক্ষ ডিফেন্ডারের ঘাম ছুটে যাওয়ার কথা। কিন্তু এক্ষেত্রে উতরে গেল ক্লাব ব্রুগে। পিছিয়ে পড়েও পিএসজির বিপক্ষে ১-১ গোলে ড্র করেছে বেলজিয়ামের ক্লাবটি।

চ্যাম্পিয়ন লিগের ‘এ’ গ্রুপে নিজেদের প্রথম ম্যাচ খেলতে বেলজিয়াম সফরে যায় পিএসজি। কিন্তু ফরাসি জায়ান্টদের সুখস্মৃতি নিয়ে ফিরতে দিল না ক্লাব ব্রুগে। ঘরের মাঠ হেন ব্রিডেল স্টেডিয়ামে মেসি-নেইমার-এমবাপ্পেদের থামাতে হলে রক্ষণাত্মক ফুটবল খেলার চেষ্টা করতে হবে, এমনটাই হয়তো ভেবেছিল সবাই।

কিন্তু ক্লাব ব্রুগের কোচ ফিলিপে ক্লেমেন্ট হাঁটলেন ভিন্ন পথে। রক্ষণ সামলে প্রতি-আক্রমণ। আর তাতে সফলই বলা চলে বেলজিয়ান কোচকে। বল দখলে পিছিয়ে থাকলেও পিএসজির চেয়ে বেশি শট নিয়েছে তারা। মেসি-নেইমারদের ৯ শটের বিপরীতে ক্লাব ব্রুগের শট ১৬। তার মধ্যে লক্ষ্যে ৭। অন্যদিকে পিএসজির লক্ষ্যে শট ছিল ৪।

চ্যাম্পিয়নস লিগ জয়কে এখন পাখির চোখ করেছে পিএসজি। তার জন্য বার্সেলানা থেকে মেসিকে পার্ক দে প্রিন্সেসে এনেছে ফরাসি জায়ান্টরা। ক্লাব ব্রুগের বিপক্ষে ম্যাচ দিয়ে পিএসজির জার্সিতে চ্যাম্পিয়নস লিগে অভিষেক হলো মেসির। সেই সঙ্গে বিশ্ব দেখল আক্রমণভাগের সেরা তিন তারকাকে একই সঙ্গে।

মেসি, নেইমার ও এমবাপ্পে। কিন্তু কোচ মাউরিসিও পচেত্তিনোর মুখে হাসি ফোটাতে পারেননি তারা। অবশ্য আনহেল দি মারিয়া ছিলেন না উইংয়ে। পরে ৫১তম মিনিটে এমবাপ্পের বদলি হিসেবে মাউরো ইকার্দিকে নামিয়েও সফলতা পাননি পিএসজি কোচ।

শুরুতে অবশ্য এগিয়ে গিয়েছিল ফরাসি জায়ান্টরা। ক্লাব ব্রুগের ২৯ হাজার দর্শক-সমর্থকদের হাসি কেড়ে নেন আন্দের হেরেরা। ১৫তম মিনিটে বাঁ-পাশ থেকে এমবাপ্পের বাড়ানো বলে জাল খুঁজে নেন স্প্যানিশ মিডফিল্ডার। কিন্তু প্রথমার্ধেই সমতায় ফেরে স্বাগতিকেরা। ডিফেন্ডার এদুয়ার্দ সোবলের পাস থেকে ক্লাব ব্রুগেকে সমতায় ফেরান হ্যান্স ভানাকেন। এরপর পচেত্তিনোর শিষ্যদের আর গোল পেতে দেয়নি তারা।

ক্লাব ব্রুগে অবশ্য ভাগ্যেরও সহায়তা পেয়েছে। মেসির একটি শট লাগে ক্রসবারে। তবে পুরো ম্যাচে বড় কোনো প্রভাব বিস্তার করতে পারেননি আর্জেন্টাইন ফরোয়ার্ড। দ্বিতীয়ার্ধে হলুদ কার্ডও দেখেন মেসি। পুরো ম্যাচে জায়গা খুঁজে বেড়ানো ৩৪ বছর বয়সী তারকাকে আটকে রাখার ক্ষেত্রে সফল ক্লাব ব্রুগের রক্ষণভাগ।


আরও পড়ুন