ইউএনওর মতো নিরাপত্তা পাবেন চেয়ারম্যানরা

দেশের সব উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যানকে উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তার (ইউএনও) মতো নিরাপত্তা দেওয়ার নির্দেশ দিয়েছেন হাইকোর্ট। একই সঙ্গে উপজেলা পরিষদ ভবনের সাইনবোর্ডে ইউএনওর কার্যালয়ের পরিবর্তে উপজেলা পরিষদ কার্যালয় লেখারও নির্দেশ দেওয়া হয়েছে। এক রিটের পরিপ্রেক্ষিতে বিচারপতি ফারাহ মাহবুব ও বিচারপতি এসএম মনিরুজ্জামানের হাইকোর্ট বেঞ্চ এ আদেশ দেন। গতকাল বৃহস্পতিবার রিটের পক্ষের আইনজীবী ড. মহিউদ্দিন মো. আলামিন বিষয়টি গণমাধ্যমকে নিশ্চিত করেন। তিনি বলেন, আদালত রুলসহ আদেশ দিয়েছেন। রুলে উপজেলা পরিষদ আইন ১৯৯৮-এর ১৩ (ক) ১৩ (খ) ও ১৩ (গ) ধারা কেন সংবিধানের সঙ্গে সাংঘর্ষিক হবে না তা জানতে চাওয়া হয়েছে। সরকারকে বলা হয়েছে চার সপ্তাহের মধ্যে রুলের জবাব দিতে।

আদালতে রিটের পক্ষে ছিলেন ব্যারিস্টার আজমালুল হোসেন কিউসি ও ড. মহিউদ্দিন মো. আলামিন। রাষ্ট্রপক্ষে ছিলেন অতিরিক্ত অ্যাটর্নি জেনারেল মেহেদী হাসান চৌধুরী ও ডেপুটি অ্যাটর্নি জেনারেল সমরেন্দ্রনাথ বিশ্বাস।

ড. মহিউদ্দিন মো. আলামিন বলেন, চলতি বছরের ১৫ জুন উপজেলা চেয়ারম্যানদের ক্ষমতা খর্ব করে ইউএনওদের ক্ষমতা দেওয়ার বৈধতা নিয়ে হাইকোর্টে রিট করা হয়। পটুয়াখালীর দশমিনা উপজেলা চেয়ারম্যান মো. আবদুল আজিজসহ তিনজন উপজেলা চেয়ারম্যান এ রিট করেন। ওই রিটের ওপর শুনানি নিয়েই হাইকোর্ট আদেশ দেন।

এদিকে গত ১৪ সেপ্টেম্বর হাইকোর্টের আরেকটি বেঞ্চ উপজেলা পরিষদের অধীনে ন্যস্ত সব দপ্তরের কার্যক্রম পরিষদের চেয়ারম্যানের অনুমোদনক্রমে ও বিধি অনুসারে করার জন্য ইউএনওদের প্রতি নির্দেশ দিয়ে সার্কুলার জারি করতে বলেছেন। সার্কুলারে হাইকোর্টের আদেশের বিষয়টি উল্লেখ করতে বলা হয়েছে। মন্ত্রিপরিষদ সচিব, স্থানীয় সরকার মন্ত্রণালয়ের সচিবসহ সংশ্লিষ্ট বিবাদীদের এ নির্দেশ বাস্তবায়ন করতে বলেছেন আদালত।


আরও পড়ুন