নির্যাতন সইতে না পেরে পুরুষাঙ্গ কেটে স্বামীকে হত্যা

ভোলার লালমোহন উপজেলার ধলিগৌরনগর ইউনিয়নে স্বামীর নির্যাতন সইতে না পেরে তাকে পুরুষাঙ্গ ও গলাকেটে হত্যার অভিযোগ উঠেছে এক গৃহবধূর বিরুদ্ধে। এ ঘটনায় দায়ের করা মামলায় গতকাল রোববার অভিযুক্তকে গ্রেপ্তার করেছে পুলিশ।

লালমোহন থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মো. মাকসুদুর রহমান মুরাদ জানান, গ্রেপ্তারের পর প্রাথমিক জিজ্ঞাসাবাদে ওই নারী হত্যার কথা স্বীকার করেছেন। ওই নারী বলেছেন, তার স্বামী তাকে বিভিন্ন সময় শারীরিক ও মানসিক নির্যাতন করতেন। নির্যাতনে সইতে না পেরে তাকে হত্যা করেন তিনি।

রোববার রাতে লালমোহন থানায় সংবাদ সম্মেলনে অতিরিক্ত পুলিশ সুপার (প্রশাসন) আবুল কালাম আজাদ বলেন, ‘গতকাল সকাল ৬টার দিকে নিজ ঘরে ঘুমন্ত স্বামীর গলা ও পুরুষাঙ্গ কেটে তাকে হত্যা করেন। পরে দুই সন্তান নিয়ে পালিয়ে যান। সন্ধ্যা ৭টার দিকে তাকে ধলীগৌরনগর বালিরটেক থেকে তাকে গ্রেপ্তার করা হয়। এ ঘটনায় নিহতের ভাই বাদী হয়ে লালমোহন থানায় মামলা দায়ের করেন।


আরও পড়ুন