শৈলকুপায় আ. লীগের দুই গ্রুপের সংঘর্ষ, আহত ২০

ঝিনাইদহের শৈলকুপায় স্থানীয় আওয়ামী লীগের দুই গ্রুপের সংঘর্ষের ঘটনা ঘটেছে। গতকাল শনিবার রাত ১০টার দিকে উপজেলার হাকিমপুর গ্রামে এ সংঘর্ষের ঘটনা। এ সময় দেশীয় অস্ত্রের আঘাতে ২০ ব্যক্তি আহত ও ১০ বাড়ি ভাঙচুর ও লুটপাটের ঘটনা ঘটে। আহতদের শৈলকুপা উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্স ও ঝিনাইদহ সদর হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে।

এলাকাবাসীরা জানান, দীর্ঘদিন ধরে হাকিমপুর গ্রামে আনু মোল্যা গ্রুপ ও আ. সালাম মোল্যা গ্রুপের মধ্যে এলাকায় প্রভাব বিস্তারকে কেন্দ্র করে বিরোধ চলে আসছিল। তার জের ধরে শনিবার সন্ধ্যায় একই গ্রামের তারিক নামের এক ভ্যান চালককে হাকিমপুর জামে মসজিদের সামনে অর্তকিতভাবে হামলা করে। পরে সেই ঘটনাকে কেন্দ্র করে রাতে দুই গ্রুপের সমর্থকরা দেশীয় অস্ত্র নিয়ে একে অপরের ওপর হামলা করে। এতে বারিক মোল্যা (৫৮), উজির মোল্যা (৫০), রায়হান (১৬), জলিল শেখ (৬০), টকন মোল্যা( ৩০) আমিরুল ইসলাম (৫০) ও তারিকসহ (৩২) উভয় গ্রুপের ২০ ব্যক্তি আহত হয়। আহত ব্যক্তিদের চিকিৎসার জন্য শৈলকুপা উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্স ও ঝিনাইদহ সদর হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে। এ ছাড়া হামলায় গনি মোল্যা , সুকুর মোল্যা ,মামুন লস্কার, আলিম উল্লাসহ ১০/১২ জনের বাড়িঘর ভাঙচুর ও লুটপাটের ঘটনা ঘটেছে বলে জানান আহত জলিল।

এ বিষয়ে শৈলকুপা থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) রফিকুল ইসলাম জানান, হাকিমপুর গ্রামে দুই পক্ষের মধ্যে হামলার ঘটনায় মামলা হয়েছে এবং দুজনকে আটক করে আদালতে পাঠানো হয়েছে। এ ছাড়াও এলাকার পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে রাখতে অতিরিক্ত পুলিশ মোতায়েন করা হয়েছে।


আরও পড়ুন