পুলিশের ওপর হামলা, কিশোরগঞ্জে ছাত্রদলের ৬ নেতা কারাগারে

হেফাজতের হরতাল চলাকালে পুলিশের ওপর হামলা ও সহিংসতার অভিযোগে মামলায় কিশোরগঞ্জে ছাত্রদলের ছয় নেতার জামিন নামঞ্জুর করে কারাগারে পাঠিয়েছেন আদালত।

সোমবার (২৫ অক্টোবর) দুপুরে সিনিয়র জেলা ও দায়রা জজ মো. সায়েদুর রহমান খানের আদালতে হাজির হয়ে তারা জামিন আবেদন করেন। বিচারক জামিন নামঞ্জুর করে তাদের কারাগারে পাঠানোর নির্দেশ দেন।

আসামিরা হলেন জেলা ছাত্রদলের সভাপতি মো. মারুফ মিয়া, সহ-সভাপতি মো. সাঈদ সুমন, সাংগঠনিক সম্পাদক মো. শরীফুল ইসলাম নিশাদ, সদর উপজেলা ছাত্রদলের যুগ্ম আহ্বায়ক রাশেদ রায়হান, কিশোরগঞ্জ পৌর ছাত্রদলের যুগ্ম আহ্বায়ক মো. অলি উল্লাহ অলি ও জেলা যুবদলের সাবেক নেতা রুবেল মুন্সী।

উল্লেখ্য, গত ২৮ মার্চ ডাকা হরতালে কিশোরগঞ্জে পুলিশ ও আওয়ামী লীগের নেতাকর্মীদের সঙ্গে হেফাজতে ইসলামের নেতাকর্মীদের দফায় দফায় সংঘর্ষের ঘটনা ঘটে। সংঘর্ষে পুলিশের ওপর হামলা ও সহিংসতার অভিযোগে তাদের বিরুদ্ধে মামলা হয়। ওই দিন ভাংচুর করা হয় স্টেশন রোডে অবস্থিত জেলা আওয়ামী লীগের কার্যালয়। অপরদিকে আওয়ামী লীগের নেতাকর্মীরা সন্ধ্যায় শহরের তমালতলা এলাকায় জেলা বিএনপির কার্যালয় ও স্টেশন রোডের সদর উপজেলা বিএনপির কার্যালয়ে হামলা চালায়।

এ সময় তারা আগুন দিয়ে পুড়িয়ে দেয় কার্যালয়টি। ওই দিন দুপুর ১২টা থেকে সন্ধ্যা পর্যন্ত শহরের স্টেশন রোডের পুরান থানা থেকে আওয়ামী লীগ অফিস এলাকা এবং আঠারোবাড়ি কাছারি মোড় থেকে গৌরাঙ্গবাজার এলাকা রণক্ষেত্রে পরিণত হয়। যানবাহন দোকানপাট বন্ধ থাকায় অচল হয়ে পড়ে পুরো কিশোরগঞ্জ শহর।


আরও পড়ুন